সিওল: রাশিয়ার সামরিক বিমানকে লক্ষ্য করে ৩৬০ রাউন্ড গুলি চালাল দক্ষিণ কোরিয়ার এয়ার ফোর্স জেট। মঙ্গলবার পরপর তিনবার দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করে ঢুকে পড়ে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান। যদিও দক্ষিণ কোরিয়ার সেই দাবি উড়িবে দিয়েছে রাশিয়া।

কাগসিমা দ্বীপের উপর দিয়ে মঙ্গলবার ওই রুশ বিমানটি আকাশসীমা লঙ্ঘন করে বলে দাবি দক্ষিণ কোরিয়ার। এরপরই তারা গুলি ছঁড়তে শুরু করে। জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া, দুই দেশই এই দাবি তাদের বলে দাবি করে।

জানা গিয়েছে, রাশিয়ার যুদ্ধবিমান পর পর তিন বার দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করলে তাদের বিমানবাহিনীর যুদ্ধবিমান রুশ বিমানটিকে ধাওয়া করে এবং সতর্কতামূলক গুলি ছোঁড়ে। স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে প্রথম দফায় রাশিয়ার যুদ্ধবিমান দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করে এবং তিন মিনিট ধরে সেই বিমান আকাশে চক্কর কাটতে থাকে।

দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী জানায়, আধ ঘণ্টা পর বিমানটি ফের দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করে ঢুকে পড়ে। দ্বিতীয় দফায় চার মিনিট ধরে তা অব্যাহত থাকে। রাশিয়ার যুদ্ধবিমানের সঙ্গে চিনের সামরিক বিমানও আকাশসীমা লঙ্ঘন করে দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রবেশ করে বলেও দাবি দক্ষিণ কোরিয়ার।

সিওলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণাকের এক কর্মকর্তা বলেন, এই প্রথম রাশিয়ার কোনও সামরিক বিমান দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছে। দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ বাহিনীর প্রধান জানিয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী রুশ সামরিক বিমান লক্ষ্য করে ৩৬০ রাউন্ড গুলি ছুঁড়েছে।