স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কুশপুতুল পোড়ানো যাবে না৷ প্রদেশ কংগ্রেসকে এমনই শর্ত দিয়েছিল পুলিশ৷ কিন্তু বিক্ষোভকারীদের হাতে শিক্ষামন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দেখে কোনও ঝুঁকি নিল না তারা৷ কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের হাত থেকে কুশপুতুল ছিনিয়ে নিয়ে পালাল পুলিশ৷ যা দেখে রীতিমত তাজ্জব বিক্ষোভকারীরা৷

মাধ্যমিকে ছটি বিষয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার প্রতিবাদে রবিবার হাজরা মোড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচী ছিল প্রদেশ কংগ্রেসের দক্ষিণ কলকাতা জেলা নেতৃত্বের৷ এই কর্মসূচীতে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কুশপুতুল দাহ করার পরিকল্পনা ছিল কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের৷ পরিকল্পনামতোই শিক্ষামন্ত্রীর কুশপুতুল নিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন তাঁরা৷ কিন্তু কংগ্রেসের অভিযোগ, পুলিশ তাদের শর্ত দিয়েছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কুশপুতুল পোড়ানো যাবে না৷কিন্তু যখনই পুলিশ দেখে কুশপুতুল পোড়ানোর তোড়জোড় করছে বিক্ষোভকারীরা তখনই তাদের হাত থেকে ওই কুশপুতুল ছোঁ মেরে নিয়ে যায় তাঁরা৷ তারপর সেটাকে প্রিজন ভ্যানে তুলে এলাকা ছাড়ে৷

পুলিশের এই ভূমিকায় রীতিমত ক্ষুব্ধ কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা৷ তাদের প্রশ্ন, এরাজ্যে তৃণমূল যদি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কুশপুতুল পোড়াতে পারে তাহলে আমরা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর কুশপুতুল কেন পোড়াতে পারব না?

দক্ষিণ কলকাতা জেলার কংগ্রেস নেতা প্রদীপ প্রসাদ বলেন, “প্রথম থেকেই পুলিশের আপত্তি ছিল রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর কুশপুতুল পোড়ানো নিয়ে৷কিন্তু আমরা যখন কুশপুতুল পোড়াতে যাই তখন পুলিশ বল প্রয়োগ করে সেটা কেড়ে নিয়ে ভ্যানে তুলে নিয়ে অদৃশ্য হয়ে যায়৷ এই ঘটনাকে আমরা ধিক্কার জানাচ্ছি৷ এভাবে প্রতিদিন গণতন্ত্রকে হত্যা করছে এরাজ্যের সরকার৷”