স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: দায়িত্ব নিয়েই পুরনোদের ফিরিয়ে এনে সম্মান জ্ঞাপনের উদ্যোগ অর্পিতা ঘোষের। মমতা বন্দোপাধ্যায় অর্পিতা ঘোষকে দক্ষিণ দিনাজপুরের তৃণমূলের সভাপতির দায়িত্ব দিয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেলে সভাপতি হিসেবে প্রথম সভা করলেন তিনি।

সেই সভায় দীর্ঘ দিন দল থেকে বহিষ্কৃত নেতা শুভাশিস পাল ওরফে সোনাকে ফিরিয়ে নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি। শুধু সোনা পালই নয়, জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের এক সময়কার সম্পদ হিসেবে সুপরিচিত নেতা কর্মী। সম্মান না মেলায় যাঁরা মুখ ঘুরিয়ে রয়েছেন। তাঁদেরও ফিরিয়ে আনা হবে বলে অর্পিতা ঘোষ জানিয়েছেন।

লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির ঘটনায় ক্ষুব্ধ তৃণমূল সুপ্রিমো বিপ্লব মিত্রকে দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে অর্পিতা ঘোষকে দায়িত্ব দিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণার এক সপ্তাহ অতিক্রম না হতেই জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের পদে ফের রদবদল। বিপ্লব মিত্র অনুগামী হিসাবে পরিচিত তৃণমূল যুব কংগ্রেসের জেলা সভাপতি উত্তম ঘোষকে জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল৷ তার পরিবর্তে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের নতুন জেলা সভাপতি হিসাবে একাধারে যেমন অম্বরিশ সরকারকে বসাল তেমনি অপরদিকে তৃণমূল থেকে ছয় বৎসরের জন্য বহিষ্কৃত হওয়া তৃণমূল নেতা সোনা পালকে আবার দলে ফেরাল তৃণমূল নেতৃত্ব।

মঙ্গলবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট শহরের সূবর্ণতট সভাগৃহে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে দলীয় এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণের কথা জানান দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের নব জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ। বালুরঘাট লোকসভায় তৃণমূলের ভরাডুবির পর থেকে তৎকালীন তৃণমূলের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র এবং তাঁর অনুগামী তৃণমূলের নেতা-কর্মী সমর্থকরা বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন বলে জল্পনা তৈরি হয়।

কয়েক দিনের মধ্যে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূলের জেলা সভাপতির পদ থেকে বিপ্লব মিত্র-কে সরিয়ে দেয়। তৃণমূল যুব কংগ্রেসের জেলা সভাপতির পদ থেকে বিপ্লব মিত্র অনুগামী হিসাবে পরিচিত উত্তম ঘোষকে সরিয়ে দেওয়া কি তাহলে উত্তম ঘোষ-এর বিজেপিতে যোগদানের আশঙ্কার কারণে? প্রতিবেদকের এই প্রশ্নের উত্তরে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ বলেন আমরা কোন শঙ্কা বা আশঙ্কায় যাচ্ছি না, যা হবে সেটা আপনারা সকলে দেখতে পাবেন।

এই প্রসঙ্গে অর্পিতা ঘোষ আরও বলেন, অনেকদিন ধরেই যুব সভাপতি পরিবর্তনের কথা নিয়ে রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা চলছিল, আমরা আমাদের যুব সংগঠনকে সক্রিয় করার লক্ষ্যে যুব সভাপতি হিসাবে অম্বরিশকে বেছে নিয়েছি। অপরদিকে বহিষ্কৃত নেতা সোনা পালকে ফের তৃণমূলে ফিরিয়ে নেওয়া প্রসঙ্গে বলেন তিনি রাজ্য নেতৃত্ব এবং তৃণমূল নেত্রীর কাছে বেশ কিছুদিন পূর্বে চিঠি পাঠিয়েছিলেন দলে কাজ করতে চেয়ে এবং ক্ষমা প্রার্থনা করেছিলেন। তবে এদিন তৃণমূলের পক্ষ থেকে সোনা পালকে দলে ফেরানোর ঘোষণা করা হলেও সোনা পালকে তৃণমূলে কি পদ দেওয়া হবে সেই বিষয়ে দলের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ।

তৃণমূলের পক্ষ থেকে ডাকা এদিনের এই সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলের এসসি এসটি সেল-এর জেলা সভাপতি সত্যেন্দ্রনাথ রায়, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি অতনু রায়, তৃণমূল নেতা ও বিধায়ক বাচ্চু হাসদা, তৃণমূল নেতা ও বিধায়ক তোরাফ হোসেন মণ্ডল উপস্থিত ছিলেন৷ কিন্তু অনুপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা বিপ্লব মিত্র সহ তাঁর অনুগামী হিসাবে পরিচিত তৃণমূল নেতারা।

বিপ্লব মিত্র-র বিজেপিতে যোগদান করতে চলা নিয়ে জেলায় চলতে থাকা জল্পনা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অর্পিতা ঘোষ বলেন, বিপ্লব মিত্র জেলায় নেই, জেলায় এলে নিশ্চয় যোগাযোগ করব। সেই সঙ্গে তিনি এও বলেন বিপ্লব মিত্র দলত্যাগ করছেন কিনা বা করবেন কিনা সেটা নিয়ে আমার কোন মন্তব্য থাকতে পারে না, সেটা তার নিজস্ব বিবেচনা।

কংগ্রেস ছেড়ে একদা তৃণমূলে যোগদান করা গঙ্গারামপুরের বিধায়ক গৌতম দাস-এর বিজেপিতে যোগদান করা নিয়ে জল্পনায় বিষয়ে তিনি দাবি করে বলেন, আমরা গৌতমের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি৷ সে জানিয়েছে সে যাবে না। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পরাজিত হলেও ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের তুলনায় তৃণমূলের ভোট ব্যাংকে যে চার শতাংশ ভোট বেড়েছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।