স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: জলের কল বসানোকে কেন্দ্র করে দলীয় কর্মীকে মারধর ও হুমকির অভিযোগ স্থানীয় কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে৷ ঘটনাস্থল বিধাননগর পুরসভার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড৷ স্থানীয় কাউন্সিলর নির্মল দত্তের বিরুদ্ধে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় অভিযোগ৷ পুলিশের কাছে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেন কাউন্সিলরেরও৷ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

অভিযোগ, মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় কাউন্সিলর নির্মল দত্ত লোকজন নিয়ে এলাকার একটি পুকুরের পাশে জলের কল বসাতে যান৷ ওই পুকুরের মালিক স্থানীয় বাসিন্দা নাড়ুগোপাল চক্রবর্তী৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন তিনি৷ কাউন্সিলরকে বাঁধা দেন তিনি৷ এবং বলেন, পুকুরে মাছ চাষ করেছি৷ এখানে কল বসালে স্থানীয় মানুষ জামা কাপড় কাচবে এবং স্নান করবে৷ ফলে মাছ চাষে ক্ষতি হবে৷ এরপরই দু’জনের মধ্যে বচসা শুরু হয়৷

হঠাৎ কাউন্সিলর নির্মল দত্ত পুকুরের মালিককে মারধর করেন বলে অভিযোগ৷ শুধু তাই নয়, মাথায় গুলি করে খুলি উড়িয়ে দেওয়ার হুমকিও দেন নাড়ুগোপালকে৷ মারধরের ফলে আহত হন ওই স্থানীয় বাসিন্দা৷ যে কিনা আবার এলাকায় তৃনমূলের একজন কর্মী বলে পরিচিত৷ এরপরই নাড়ুগোপাল বিধাননগর দক্ষিণ থানায় গিয়ে কাউন্সিলরেরে বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন৷

অন্যদিকে বিধাননগর পুরসভার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিজে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় যান৷ দলীয় কর্মী নাড়ুগোপাল চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেন৷ তার অভিযোগ, নাড়ুগোপাল এলাকার উন্নয়নে বাঁধা দিচ্ছেন৷ আমাদের নেত্রী যখন শহর ও শহরতলি এমনকী গ্রামেও একের পর এক উন্নয়নের নজির সৃষ্টি চলেছেন৷ সেখানে নাড়ুগোপাল উন্নয়নের বিরুদ্ধে কথা বলছেন এবং বাধা দিচ্ছেন৷ তবে নাড়ুগোপাল যে মারধর ও হুমকির অভিযোগ করেছে সে বিষয়ে কাউন্সিল অস্বীকার করে জানান, আমি তাকে মারধর করিনি৷