ব্লুমফন্টেন: ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার কাছে টি-২০ সিরিজ হারের মধুর প্রতিশোধ নিল দক্ষিণ আফ্রিকা৷ ১ ম্যাচ বাকি থাকতেই পরবর্তী ৩ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল প্রোটিয়ারা৷ ব্লুমফন্টেনে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে অজিদের ৬ উইকেটে পরাজিত করে দক্ষিণ আফ্রিকা৷

আরও পড়ুন: থমাসের আগুনে ঝলসে গেল শ্রীলঙ্কা

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়া নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৭১ রানে অল-আউট হয়ে যায়৷ হাফ-সেঞ্চুরি করেন অ্যারন ফিঞ্চ ও ডার্সি শর্ট৷ লুঙ্গি এনগিদি ওয়ান ডে কেরিয়ারের সেরা বোলিং করেন৷ পালটা ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৮.৩ ওভারে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ২৭৪ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়৷ আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের প্রথম শতরান করে অপরাজিত থাকেন নবাগত প্রোটিয়া ওপেনার জানেম্যান মালান৷ হাফ-সেঞ্চুরি করেন হেনরিচ ক্লাসেন৷

আরও পড়ুন: সেমিফাইনাল না খেলেই বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠতে পারে ভারত

ডেভিড ওয়ার্নার অজি ইনিংসের গোড়াপত্তন করেন স্বাভাবসুলভ আগ্রাসনে৷ ২৩ বলে ৩৫ রান করে আউট হন তিনি৷ ফিঞ্চ করেন ৮৭ বলে ৬৯ রান৷ স্টিভ স্মিথ মাত্র ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন৷ খাতা খুলতে পারেননি মার্নাস ল্যাবুশেন৷ ডার্সি শর্ট ৮৩ বলে ৬৯ রান করে ক্রিজ ছাড়েন৷ মিচেল মার্শের সংগ্রহ ৪৫ বলে ৩৬ রান৷ ক্যারি প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটা লাগান ২১ বলে ২১ রান করে৷ বাকিরা দু’অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেননি৷ এনগিদি ৫৮ রানের বিনিময়ে ৬টি উইকেট নেন৷ ২টি উইকেট দখল করেন এনরিচ নর্ৎজে৷

আরও পড়ুন: নতুন নির্বাচক প্রধান খুঁজে নিল বোর্ড

প্রোটিয়া অধিনায়ক কুইন্টন ডি’কক খাতা খুলতে ব্যর্থ হন৷ দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কেরিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ান ডে খেলতে নামা মালান ১৩৯ বলে ১২৯ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন৷ জেজে স্মুটস ৬৪ বলে ৪১ রানের যোগদান রাখেন৷ কাইল ভেরেইন ৩ রান করে আউট হয়ে বসেন৷ ক্লাসেন ৫২ বলে ৫১ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে ফিরে যান৷ ২৯ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন ডেভিড মিলার৷ যুগ্মভাবে ম্যাচের সেরা হন এনগিদি ও মালান৷

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।