মুম্বই: দেশ লড়াই করছে করোনা নামক এক ভয়াবহ প্রতিকূলতার সঙ্গে। তাই ৪৭ তম জন্মদিন পালনের ইচ্ছে থেকে সরে এসেছেন। করোনা লড়াইয়ে সর্বাগ্রে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন যাঁরা, তাদের সম্মান জানাতে ৪৭ তম জন্মদিন সেলিব্রেট না-করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সচিন রমেশ তেন্ডুলকর। কিন্তু তাতে তো আর শুভেচ্ছার বন্যা বাঁধ মানবে না। স্বাভাবিকভাবেই ঘড়ির কাঁটা রাত ১২টা ছুঁতে না-ছুঁতেই জন্মদিনের শুভেচ্ছায় ভাসতে শুরু করেন ‘ক্রিকেটঈশ্বর’৷

অসংখ্য ক্রিকেট অনুরাগীদের সঙ্গে সঙ্গে প্রাক্তন সতীর্থদের শুভেচ্ছাবার্তায় উপচে পড়ছে লিটল মাস্টারের ইনবক্স। বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, যুবরাজ সিং, ভিভিএস লক্ষ্মণ, মহম্মদ কাইফ কে নেই সেই তালিকায়। একনজরে দেখে নেওয়া যাক সচিনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে কে কী লিখলেন।

ছোটবাবু’কে শুভেচ্ছা জানিয়ে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট তথা জাতীয় দলের তাঁর প্রাক্তন সতার্থ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আরোগ্য কামনা করেন সচিন রমেশ তেন্ডুলকরের। সৌরভ লিখলেন, ‘সচিন রমেশ তেন্ডুলকরকে জন্মদিনের অনেক শুভেচ্ছা। তোমার সুস্থ ও সুখী জীবন কামনা করি।’ লিটল মাস্টারকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দু’টি ছবি পোস্ট করেন আরেক ওপেনিং পার্টনার বীরেন্দ্র সেহওয়াগ। যার মধ্যে একটি ২০০৭ ক্রিকেট বিশ্বকাপ থেকে আচমকা দলের প্রস্থানের পরের ছবি। এবং আরেকটি অবশ্যই ২০১১ কাঙ্খিত বিশ্বকাপ ট্রফি জয়ের পর সেলিব্রেশনের ছবি।

ছবিদু’টি পোস্ট করে সেহওয়াগ লেখেন, ‘এই ছবি দু’টির মধ্যেই সচিন রমেশ তেন্ডুলকরের কেরিয়ার বর্ণনা করা আছে। এমন একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দাঁড়িয়ে তাই আমাদের মনে রাখতে হবে খারাপ সময় কেটে গেলে ভালো সময় আসে।’ জন্মদিনে লক্ষ্মণের ভেরি ভেরি স্পেশাল শুভেচ্ছাও পেয়ে গিয়েছেন মুম্বইকার। শুভেচ্ছাবার্তায় হায়দরাবাদি লিখেছেন, ‘জন্মদিনের শুভেচ্ছা প্রিয় সচিনকে। তুমি অনুপ্রেরণা ছিলে এবং আগামীতেও থাকবে। তুমি জীবনে যাই করো যেন আরও আনন্দ ও সাফল্য পেতে পারো।’

যুবরাজ জন্মদিনে সচিনকে লিখেছেন, ‘কিংবদন্তি ব্যাটের মতোই তোমার হৃদয়ে কিছু মিষ্টি জায়গা রয়েছে। মাস্টার-ব্লাস্তার সচিন রমেশ তেন্ডুলকরকে শুভ জন্মদিনের শুভেচ্ছা। তোমার রেকর্ডের মতো তোমার জীবনও উজ্জ্বল থাকুক আর তুমি তোমার মহৎ কাজের মধ্যে দিয়ে কোটি-কোটি মানুষের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকো। অনেক অনেক ভালোবাসা এবং শুভেচ্ছা।’

জন্মদিনে সচিনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তাঁর যোগ্য উত্তরসূরী বিরাট কোহলি লেখেন, ‘শুভ জন্মদিনের শুভেচ্ছা সেই মানুষটাকে, যার ক্রিকেটের প্রতি আগ্রহ বহু ক্রিকেটারের অনুপ্রেরণা। বছরটা ভালো কাটুক পাজি।’

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব