কলকাতা: সিএবি প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসার পর এটাই প্রথম আইপিএল সৌরভের৷গত রবিবার ইডেনে টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে শেষ না-হওয়া পর্যন্ত সৌরভ গঙ্গোপাধায়ের চোখেমুখে স্বস্তির ছাপ দেখা যায়নি৷শেষমেশ বিশ্বকাপ ফাইনালের সফল আয়োজনের পর হাফ-ছেড়ে বেঁচে ছিলেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা অধুনা ভারতীয় ক্রিকেটের প্রশাসক৷

কিন্তু এই রবিবার ইডেনে আইপিএল নাইনের প্রথম ম্যাচ থেকেই ফুরফুরে মেজাজে দেখা গেল মহারাজকে৷কারণ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে প্রশাসক সৌরভের দায়িত্ব অনেক কম৷বরং ক্রিকেটটা উপভোগ করার সুযোগ অনেক বেশি৷তাই খোলামনেই কলকাতা নাইটরাইটার্স ও দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের ম্যাচ দেখলেন সৌরভ৷তার আগে মাঠে নেমেই দ্রুত চলে গেলেন জাতীয় দলে তাঁর প্রাক্তন সতীর্থ তথা তাঁর অধিনায়কত্বে টিম ইন্ডিয়ার বোলিংয়ের প্রধান অস্ত্র জাহির খানের দিকে৷ওয়ার্ম-আপ করার ফাঁকেই ‘দাদি’র সঙ্গে হাসিঠাট্টা করলেন ডেয়ারডেভিলস অধিনায়ক৷যদিও ম্যাচের শেষে হাসি থাকেনি জাহিরের মুখে৷প্রথম ম্যাচেই নাইটদের কাছে নাস্তানাবুদ হল ডেয়ারডেভিলস৷দিল্লিকে ৯ উইকেটে হারিয়ে আইপিএল নাইনে স্বপ্নের যাত্রা শুরু করল কেকেআর৷দিল্লিকে প্রথমে ৯৮ রানে আটকে রেখে মাত্র এক উইকেট হারিয়ে ম্যাচ জিতে নেয় কলকাতা৷ম্যাচের সেরা এদিনই সকালে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়া সদ্য ক্যারিবিয়ানের টি-২০ বিশ্বজয়ী দলের সদস্য অান্দ্রে রাসেল৷বল হাতে শুরুতেই ২৪ রানে তিন উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচের সেরার পুরস্কার ছিনিয়ে নেন নাইটদের ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার৷Untitled-2

নাইটদের পারফরম্যান্সে খুশি সৌরভ বলেন, ‘এই মরশুমে নাইটরা দারুণ দল৷এদিন দিল্লির বিরুদ্ধে অত্যন্ত সহজ পেয়েছে কলকাতা৷ তবে গম্ভীরদের আসল পরীক্ষা পরের ম্যাচে’৷এই পিচেই বুধবার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে খেলতে নামবে নাইটরা৷এদিন গ্যালারি বেশিভার অংশ ফাঁকা থাকলেও নাইটদের উৎসাহ দিতে মাঠে উপস্থিত ছিলেন উষা উথুপ ও ঋতুপূর্ণ সেনগুপ্ত৷