কলকাতা: হৃদপিণ্ড জনীত অসুস্থতায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মা নিরুপা৷ দিন দু’য়েক আগেই হৃদপিণ্ডজনীত সমস্যা নিয়ে শহরের এক বেসরকারী নার্সিহোমে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি৷ শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় বুধবারই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন তিনি৷

বিশ্বকাপের আসর থেকে শহরে ফিরে মায়ের অসুস্থতার খবর নিজেই জানান সৌরভ৷ যদিও ঠিক কবে ছাড়া পাবেন নিরুপা দেবী, সে সম্পর্কে নিশ্চিত ছিলেন না মহারাজ৷ পরে সৌরভের দাদা স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায় মায়ের হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার খবর জানান৷

আরও পড়ুন: বৃষ্টি থেকে ম্যাচ বাঁচাতে সৌরভের পরামর্শ ইসিবি’কে

আইসিসি প্যানেলের ধারাভাষ্যকার হিসাবে সৌরভ নিযুক্ত রয়েছেন চলতি আইসিসি বিশ্বকাপে৷ ধারাভাষ্যকারের ভূমিকা থেকে সংক্ষিপ্ত বিরতি নিয়ে ইতিমধ্যেই শহরে ফিরেছেন তিনি৷ আগামী মঙ্গলবার পুনরায় ইংল্যান্ডে ফেরার কথা তাঁর৷ আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টিম ইন্ডিয়ার পরবর্তী ম্যাচে কমেন্ট্রি বক্সে না থাকলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ভারতের ষষ্ঠ ম্যাচে আবার মাইক্রোফোন হাতে দেখা যাবে সৌরভকে৷ আগামী শনিবার সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে ভারত৷ ২৭ জুন বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ক্যারিবিয়ানদের মহড়া নেবে টিম ইন্ডিয়া৷

আরও পড়ুন: সৌরভকে চাই ভারতীয় দলে, বাল ঠাকরের মুম্বইকে চমকে দিয়েছিলেন বাঙালিবাবু

সৌরভের মা নিরুপা গঙ্গোপাধ্যায় যথার্থই রত্নগর্ভা হিসাবে পরিচিত বাংলার ক্রিকেটমহলে৷ সৌরভের দাদা তথা নিরুপা দেবীর বড় ছেলে স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায় বাংলার হয়ে ৫৯টি প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেট ম্যাচ খেলেছেন৷ তিনি ৬টি সেঞ্চুরি ও ১১টি হাফসেঞ্চুরিসহ ৩৯.৫৯ গড়ে ২৫৩৪ রান করেছেন ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে৷ পার্ট টাইম স্পিন বোলিংয়ে ২টি উইকেটও নিয়েছেন তিনি৷ স্নেহাশীষ ১৮টি লিস্ট-এ ম্যাচে ২৭৫ রান সংগ্রহ করেছেন৷

সৌরভ টিম ইন্ডিয়ার সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক ছিলেন৷ দেসের জার্সিতে ১১৩টি টেস্ট ও ৩১১টি ওয়ান ডে খেলেছেন তিনি৷ ২০১৩ সালে পিতৃবিয়োগ হয় সৌরভের৷