লস এঞ্জেলেস: কারমিয়ান কার৷ চলে গেলেন আমেরিকান এই অভিনেত্রী এবং গায়িকা, যিনি প্রথমবার রুপোলি পর্দায় এসেই জয় করে নিয়েছিলেন আপামর পুরুষ-হৃদয়ের মন, দ্য সাউন্ড অব মিউজিক ছবির সেই দুষ্টু মিষ্টি লিয়েজ়লকেই চোখের জলে বিদায় জানালেন তাঁর ভক্তকুল৷

ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশজনিত কারণে, এবং সেই সংক্রান্ত নানা জটিলতায় দীর্ঘদিন ভুগছিলেন কার৷ অবশেষে লস এঞ্জেলেস-এ ৭৩ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি৷

১৯৬৫ তে মাত্র ২১ বছর বয়সেই তিনি অভিনয়ের সুযোগ পান দ্য সাউন্ড অব মিউজিক ছবিতে৷ যেখানে ভন ট্র্যাপ পরিবারের বড় মেয়ে লিয়েজ়ল-এর ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল তাঁকে৷ অন্যান্য তারকাদের সমাবেশ থাকলেও, তিনি যেন দর্শকমনে আলাদা করেই জায়গা করে নিয়েছিলেন৷ শুধু অভিনয় নয়, এই ছবির ‘sixteen going on seventeen’ গানটিও শোনা গিয়েছিল তাঁর কন্ঠে৷ পরবর্তীকালে কার, তাঁর এই ছবি সংক্রান্ত যাবতীয় অভিজ্ঞতার কথা তিনি লিখে রেখেছিলেন তাঁর একাধিক বইয়ে৷

এখানেই থেমে থাকেননি তিনি৷ ইন্টিরিয়র ডিজাইনার হওয়ার ইচ্ছেতে পাড়ি দিয়েছিলেন দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়াতেও৷ মাইকেল জ্যাকসন থেকে দ্য সাউন্ড অব মিউজিক ছবির চিত্রনাট্যকার আরর্নেস্ট লেম্যান ছিলেন তাঁর ক্লায়েন্টদের মধ্যে অন্যতম৷

পরবর্তীকালে ডেন্টিস্ট জে ব্রেন্ট-কে বিয়ে করে, রুপোলি পর্দাকে বিদায় জানান তিনি৷ ১৯৪২-এর ডিসেম্বরে শিকাগো থেকে ২০১৬-এর সেপ্টেম্বরে লস এঞ্জেলেস, ৭৩ বছরের কারের এই সুদীর্ঘ সময়, তাঁর অভিনয়, তাঁর কন্ঠ ভুলবে না সিনেমাপ্রেমীরা তিনি বেঁচে থাকবেন তাঁর ভক্তদের হৃদয়ে, চিরদিনের জন্য৷