বাঁকুড়াঃ আপ্তসহায়ক সুকান্ত দাঁ ওরফে গোপীকে পুলিশ আটক করা নিয়ে মঙ্গলবার দিল্লী থেকেই ‘ফেসবুক লাইভে’ সরব হয়েছিলেন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। ওই লাইভে ঘোষণা অনুযায়ী বুধবার জেলায় ফিরে জেলা পুলিশ সুপারের সঙ্গে দেখা করার কথা ছিল। প্রয়োজনে এসডিপিও সুকমল কান্তি দাসের মুখোমুখি হবেন বলেও ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু সে সব না করে শাসক দলের ‘বিদ্রোহী’ এই সাংসদ বৃহস্পতিবার বিজেপির কেন্দ্রীয় দফতরে গিয়ে জোড়া ফুল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে যোগ দিলেন।

দিল্লীতে যখন এই সাংসদের বিজেপিতে যোগদান পর্ব চলছে ঠিক তখনই তার আপ্ত সহায়ক সুকান্ত দাঁ ওরফে গোপীকে বেআইনী অস্ত্র রাখার অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করে বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে তুলছে। এদিন বিচারক গোপীকে দু’দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। কড়া নিরাপত্তা ও মুখে কাপড় বেঁধে সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের আপ্ত সহায়ককে পুলিশের পক্ষ থেকে কোর্টে নিয়ে যাওয়া হয় ও বের করে আনা হয়।

পরে বিষ্ণুপুরের এসডিপিও সুকোমলকান্তি দাস উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, আগে থেকেই পুলিশ হেফাজতে থাকা কাদের খানের স্বীকারোক্তি থেকেই গোপীকে অস্ত্র আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরপর সৌমিত্র খাঁ এর অভিযোগ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ‘আমি জানিনা’ বলেই এড়িয়ে গেছেন।

গ্রেফতার হওয়া সাংসদের ‘আপ্তসহায়ক’ গোপীর স্ত্রী টিয়া দাঁ স্বামীকে ‘নির্দোষ’ দাবী করে বলেন, আমি চাই উনি সুস্থ, স্বাভাবিকভাবে বাড়ি ফিরে আসুন। মঙ্গলবার বিকেলে এসডিপিও-র ফোন পেয়ে গোপী দেখা করতে গেলে তাকে ‘চা খাওয়ানোর পর আটকে রাখা হয়েছে’ দাবী করে।

একই তিনি আরও অভিযোগ করেন, তার সাথে ও তাদের পরিবারের কারো সাথে গোপীকে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। আপনার স্বামীকে কি ‘রাজনৈতিক কারণে’ গ্রেফতার করা হয়েছে? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে টিয়া দাঁ বলেন, আমি এবিষয়ে কিছুই বুঝতে পারছিনা। নিজেকে শুধুমাত্র ‘হাউস ওয়াইফ’ দাবী করে তার স্বামী কোন পার্টি করেন তা জানেননা বলেও দাবী করেন।

অস্ত্র আইনে গ্রেফতার সুকান্ত দাঁ ওরফে গোপীর আইনজীবি সোমনাথ রায়চৌধুরী বলেন, ওর পরিবারের কাছ থেকে জেনেছি অভিযোগ সত্যি নয়। তাছাড়া সাংসদ সৌমিত্র খাঁ তাকে দিল্লী থেকে টেলিফোন করে বলেছেন, গোপী যেহেতু ওনার আপ্তসহায়ক তাই তাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই ঘটনা ঘটেছে। সাংসদের কথা মতো তিনি গোপীর হয়ে জামিনের আবেদন করেছিলেন বলেই তিনি স্পষ্টতই জানান। আইনজীবি সোমনাথ রায়চৌধুরী বাঁকুড়া জেলা বিজেপির একজন পরিচিত মুখ। বিজেপি নেতা হিসেবে সাংসদ সৌমিত্র খাঁ তাদের দলে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘ওয়েলকাম, আমাদের দলে যারা আসবেন সবাইকেই ওয়েলকাম করবো’।