তমলুক : করোনা আক্রান্ত থেকে মুক্ত হওয়ার পর সোমবার সতীর ৫১ পীঠের অন্যতম তমলুকের বর্গভীমা মায়ের মন্দিরে পুজো দিলেন রাজ্যে পরিবেশ ও কারিগিরি দফতরের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র ।

গত ২৩ আগস্ট তিনি মহামারী কোভিড-১৯ আক্রান্ত হন। ১১ দিন বাড়িতে থাকার পর তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। বর্তমানে তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ। এদিন সুস্থ হওয়ার পর তিনি সোমবার পরিবারের সদস্যদের সাথে তমলুকের বর্গভীমা মন্দিরে পুজো দেন।

পুজো দেওয়ার পর তিনি জানান, “বর্তমান সময়ে মহামারির মধ্য দিয়ে সময় কাটছে। রাজ্যের সকলে যাতে ভালো থাকেন এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তিনি যাতে সুস্থ থাকেন সেই মঙ্গল কামনা করলাম মায়ের কাছে। সতীর ৫১ পীঠের অন্যতম তমলুকের বর্গভীমা মন্দির। তাই সময় পেলেই মায়ের কাছে চলে আসি। মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে কাজ শুরু করতে চাই। তাই চলে আসা।”

২৩ অগস্ট করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানান রাজ্যের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। ফেসবুক পোস্টে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানান মন্ত্রী। তবে এখন সুস্থ হয়ে গিয়েছেন তিনি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.