Sony HT-S20R 5.1ch Dolby Digital Soundbar Home Theatre System দামের ওপরে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন। এই হোম থিয়েটার ই-কমার্স সাইটে মিলছে ১৪,৯৯০ টাকায়। দামের ওপর গ্রাহকদের মিলছে ২৫ % ছাড়। পাশাপাশি নো কস্ট ইএমআই এর ব্যবস্থাও রয়েছে এই হোম থিয়েটারের জন্য।

Sony HT-S20R 5.1ch Dolby Digital Soundbar Home Theatre System ওপর বিশেষ অফারে মিলছে গ্রাহকদের। এই হোম থিয়েটার অ্যামাজনে পাওয়া যাচ্ছে ১৪,৯৯০ টাকায়। গ্রাহকদের এই পণ্যের ওপর ২৫% বিশেষ ছাড় মিলছে এই সাইটে। এই অধীক ছাড়ের ফলে গ্রাহকরা সনি হোম থিয়েটার ক্রয় করে সাশ্রয় করবে ৫০০০ টাকা। এছাড়াও অফার ছাড়া অ্যামাজনে এর দাম ১৯,৯০০ টাকা।

 

গ্রাহকরা ১২ এপ্রিল এর মধ্যে Sony HT-S20R 5.1ch Dolby Digital Soundbar Home Theatre System অ্যামাজনে অর্ডার দিলে পাবে ফ্রি ডেলিভারির সুবিধাও। পাশাপাশি কোম্পানির তরফে ত্রুটিগত সমস্যা থাকলে ৭ দিনের মধ্যে পরিবর্তনের সুবিধাও পাবে গ্রাহক।

সংগীত শুনতে অনেকে পছন্দ করে। আর এই সংগীত প্রিয় মানুষদের জন্য সনি নিয়ে এসেছে HT-S20R 5.1ch Dolby Digital Soundbar Home Theatre System । এই হোম থিয়েটারে রয়েছে ডবলি এইচডি সাউন্ড এর ব্যবস্থা শব্দকে সুন্দর করে তুলতে। পাশাপাশি থাকছে ৩ টে চ্যালেন সাউন্ড বার, ২ টো রিয়ার স্পিকারের সঙ্গে একটি এক্সটেনডেড সাবউফারের ব্যবস্থা। এছাড়াও থাকছে ৪০০০ আউট পাওয়ারের আউটপুটের সঙ্গে রিমোর্ট কন্ট্রোলের ব্যবস্থা। টিভির সঙ্গে সংযোগ করে নানা বিনোদনের উপভোগও মিলবে সনির এই হোম থিয়েটারে।

অ্যামাজনে ৭০৬ টাকা দিয়ে ইএমআই শুরু করতে পারে গ্রাহকরা।অ্যামাজনে গ্রাহকরা ইএমআই এর জন্য ব্যবহার করতে পারবে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, বড়োদা ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক ক্রডিট কার্ড, সিটি ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, কোটাক এসবিআই ও ইয়েস ব্যাঙ্কের ক্রেডিট কার্ড।

অ্যামাজন পে আইসিআইসিআই ক্রেডিট কার্ড, অ্যামেরিকান এক্সেপ্রেস ক্রেডিট কার্ড, এক্সিস ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, ব্যাঙ্ক অব বড়োদা ক্রেডিট কার্ড, সিটি ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড, এসবিআই ও ইয়েস ব্যঙ্কের ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে গ্রাহকরা ৪,৯৯৭ টাকা করে ৩ মাসে এবং ২,৪৯৮ টাকা করে ৬ মাসে ইএমআই দিতে পারবে অ্যামাজনে। গ্রাহককে হোম থিয়েটারের দামের থেকে ইএমআই এর জন্য বেশি টাকা দিতে হবে না অ্যামাজনে।পাশাপাশি থাকছে ১ বছরের ওয়ারেন্টি পরিষেবাও মিলবে গ্রাহকদের।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।