স্টাফ রিপোর্টার , হাওড়া : চরম উত্তেজনা ও উন্মাদনার মধ্য দিয়ে গত একমাস ধরে চলা আমতা-১ ব্লকের সোনামুই ফুটবল ক্লাব আয়োজিত ‘এস.এফ.সি কাপ-১৯’-এর চূড়ান্ত পর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হল। দাশনগর এইচ.ভি মুভিজ জয়নগর পল্লী সংঘকে ১-০ গোলে পরাজিত করে। গোল করেন বিদেশী ফুটবলার স্টিফেন। চূড়ান্ত পর্বের ম্যাচে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত ফুটবলার রহিম নবি ও সুরাবুদ্দিন মল্লিক।

আট দলীয় এই আমন্ত্রণীমূলক টুর্নামেন্টের অন্যতম উদ্যোক্তা কুনাল চ্যাটার্জী জানান,ফাইনালে বিজয়ী ও বিজিত দলকে যথাক্রমে ২৮ হাজার ও ২২ হাজার টাকা,ফরগুড কাপে সম্মানিত করা হয়।পাশাপাশি রূপোর বুট ও বল দিয়ে টুর্নামেন্টের সেরা ফুটবলার ও সর্বোচ্চ গোলদাতাকে সম্মান জানানো হয়। রহিম নবি টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দলের সাথে এই মাঠেই বাংলার প্রাক্তন একঝাঁক উজ্জ্বল ফুটবলারদের মধ্যে প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। ফাইনাল উপলক্ষ্যে ছিল নৃত্য,ব্যান্ড,আতসবাজি প্রদর্শনী।কয়েক হাজার মানুষের প্রাণময় উপস্থিতিতে শীতের দুপুর কলকাকলিমুখর হয় ওঠে সোনামুই ফতে সিং নাহার উচ্চ বিদ্যালয়ের ময়দান প্রাঙ্গণ।

সোনামুই ফুটবল ক্লাবের উদ্যোগে সোনামুই ফতে সিং নাহার উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ফুটবল ময়দানে শুরু হয়ছিল তৃতীয় বর্ষের এস.এফ.সি কাপ। উদ্বোধনী ম্যাচে অংশ নিয়েছিল জয়নগর নেতাজী স্পোর্টিং ক্লাব ও রামনগর বীণাপানি সেবা সমিতি। প্রথমার্ধ্বে উভয় দল একটি করে গোল করলেও টানটান উত্তেজনার শেষে জয়নগর নেতাজী স্পোর্টিং ক্লাবে ২-১ গোলে রামনগর বীণাপাণি সেবা সমিতিকে পরাজিত করে।ম্যাচটি পরিচালনা করেন জাতীয় রেফারি অরবিন্দ বেরা।উদ্বোধনী ম্যাচ উপলক্ষে খেলার শুরুতে মাঠে বিশেষ নৃত্য ও আতসবাজি প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী দেবকুমার কোলে,প্রধান শিক্ষক দয়াময় ভট্টাচার্য,শিক্ষক অরুণ খাঁ প্রমুখ। উদ্যোক্তাদের পক্ষে কুণাল চ্যাটার্জী জানান,হাওড়া জেলার দল ছাড়াও জঙ্গলমহলের একাধিক দল এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিল। ওইদিন ক্রীড়াপ্রেমী কিশোর-প্রৌঢ়-যুবকদের পাশাপাশি মাঠে মহিলাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব