মুম্বই- সঙ্গীতশিল্পী অনু মালিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন গায়িকা সোনা মহাপাত্র। শুধু তিনি একা নন। একই সঙ্গে গায়িকা নেহা বসিন ও শ্বেতা পণ্ডিতও তাঁর বিরুদ্ধে হ্যাশট্যাগ মিটু-র মাধ্য়মে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন।

সম্প্রতি অনু মালিক এই প্রসঙ্গে একটি খোলা চিঠি প্রকাশ করেন। এই চিঠিতে অনু মালিক বলেন, আমি দুই কন্যা সন্তানের বাবা হয়ে এই কাজ করতে পারি না। এমনকী তিনি চিঠিতে দাবি করেন, ব্যক্তিগত কারণে তাঁর বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

এরই পালটা জবাব ৮টি পয়েন্টে শুক্রবার দিয়েছেন সোনা মহাপাত্র। সোনা বলছেন, আপনি বলছেন এই অভিযোগগুলি সত্যি নয়! একাধিক মহিলা এই একই অভিযোগ এনেছেন। আপনার জন্য তাঁদের মানসিক অবস্থা কী হয়েছে ভাবতে পারছেন! এত বছর ধরে ওঁদের কথা একবারও ভেবেছেন! ওঁদের এবং ওঁদের পরিবারের মানুষ যখন আপনাকে টিভিতে দেখেন তখন কেমন মানসিক অবস্থা হয় ভেবে দেখেছেন!

২০১৮-য় অনু মালিকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আসার পরে তাঁকে ইন্ডিয়ান আইডল থেকে বেরিয়ে যেতে হয়। কিন্তু এবছর ফের তাঁকে বিচারকের আসনে রাখায় নতুন করে এই অভিযোগ তোলেন সোনা। সোনার দাবি ইন্ডিয়ান আইডলে তাঁকে বিচারকের আসনে রাখার কোনও মানেই হয় না। ছোটরা ওর থেকে কিছু শিখতে পারবে না।

আদালতে গিয়ে নিজের ভুল স্বীকার করে নেওয়ার পরামর্শও দেন সোনা। সব শেষে তিনি লেখেন, সুবিচার সত্যিই পাওয়া যাবে।

এমনকী, অনু মালিকের উদ্দেশে একটি পরামর্শও দিয়েছেন সোনা। গায়িকা বলছেন, একটা ব্রেক নিন। কোনও সেক্স রিহ্যাবে যান। নিজের কাউন্সেলিং করান। বাচ্চাদের বলুন পরিশ্রম করে টাকা অর্জন করতে। ওরা এখন প্রাপ্তবয়স্ক। আমি ২২ বছর বয়সে কাজ শুরু করি।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা