স্টাফ রিপোর্টা, মালদা: পারিবারিক অশান্তির জেরে প্রতিবন্ধী বাবাকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল ছেলের বিরুদ্ধে।

মৃতের নাম, সঞ্জয় কর্মকার (৪২)। ঘটনাটি ঘটেছে, ইংরেজ বাজার থানার অন্তর্গত মিল্কি পুলিশ ফাঁড়ির শোভানগর এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দিপঙ্কর কর্মকারকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে পারিবারিক অশান্তি শুরু হয় বাবা ও ছেলের মধ্যে।

অভিযোগ, বচসার জেরেই দিপঙ্কর কর্মকার বাঁশ দিয়ে আঘাত করে৷ বাবার মাথায়। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় আহতকে উদ্ধার করে মিল্কি গ্রামীন হাসপাতালে ভরতি করলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তর জন্য মর্গে পাঠায়।

ওই দিন রাতেই অভিযুক্ত ছেলেকে গ্রেফতার করে মিল্কি ফাঁড়ির পুলিশ। তবে কি কারণে বাবাকে পিটিয়ে খুন করেছে ছেলে, তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।