স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে পোর্ট ট্রাস্টের নামকরণ হলে পরের দিনই সাইনবোর্ড খুলে দেবে বাংলার ছাত্র-যুবরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হুংকার দিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র।

রবিবার ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের অনুষ্ঠানে নাম বদলের ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। নতুন নাম হল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দর। কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের ১৫০তম বর্ষের অনুষ্ঠানে এসে মঞ্চ থেকে এমনই ঘোষণা করছেন মোদী।

এদিন তিনি বলেন , “কলকাতা বিমান বন্দরের সঙ্গে নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ এবং মায়ানমারকেও যুক্ত করা হবে। তাঁর কথায়, “পোর্ট শুধু জাহাজ আসা যাওয়া করে না, এখানে অনেক ইতিহাস। সত‍্যাগ্রহ থেকে সচ্ছাগ্রহ দেখেছে। দেশ দুনিয়ার জ্ঞানবাহকও এই পোর্ট। ভারতের আত্মনিভর্তার প্রতীক এই পোর্ট। নিউ ইন্ডিয়ার প্রতীক বানাতে হবে এই বন্দরকে।”

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে মোদীর পোর্ট ট্রাস্টের নামকরণ করার সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। তিনি বলেন, “ইতিহাস বলে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ৪২ এর আন্দোলনের শুধু বিরোধিতা করেছিলেন তাই না, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ব্রিটিশ সৈন্য বাহিনীতে ভারতীয় যুবকদের অন্তর্ভুক্তি করতে সাহায্য করেছিলেন। যিনি হিন্দুদের জন্য আলাদা দেশের প্রস্তাব দিয়েছিলেন, যখন কংগ্রেস মুসলিম লীগকে প্রত্যাখ্যান করল তখন লীগের সাথে বাংলায় মন্ত্রিসভা গঠন করেন। এইরকম একজন মানুষের নামে যদি ঐতিহাসিক কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের নাম পরিবর্তন করে তবে বাংলার ছাত্র-যুব সাইনবোর্ড সেদিনই খুলে দেবে।”