স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সরকারি অফিসে দুটো শিফট চালু করা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া সমালোচনা করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। তিনি বলেন,”এই সরকারের আসলে নিদিষ্ট কোনও পরিকল্পনা নেই,মহম্মদ বিন তুঘলক এর মতো রাজত্ব চলছে।”

রাজ্য সরকারি অফিস খুলে গিয়েছে ৮ জুন থেকে। কিন্তু এখনও পর্যাপ্ত বাস চলছে না। ট্রেনও বন্ধ। এর ফলে বাসে শারীরিক দূরত্ব রক্ষা করা সম্ভব হচ্ছে না। এই পরিস্থিতি থেকে সরকারি কর্মীদের রক্ষা করতে এবার দু’টি শিফটে অফিস হবে বলে বুধবার নবান্নে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি জানিয়েছে, এখন থেকে প্রথম শিফট শুরু হবে সকাল সাড়ে ৯টায়। এই শিফট চলে দুপুর আড়াটে পর্যন্ত। পরের শিফট শুরু হবে দুপুর সাড়ে ১২টায়। চলবে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। এখন আনলক ওয়ানে এমনিতেই সরকারি কর্মীদের একদিন অন্তর একদিন অফিস যেতে হচ্ছে। এবার কাজের সময়ও কমে গেল। অফিসে থাকতে হবে মাত্র ৫ ঘণ্টা।

এরপরই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, “সরকার হঠাৎ করে ঘোষণা করলেন ১লা জুন থেকে সমস্ত অফিস খুলে দেওয়ার কিন্তু কোনও উপযুক্ত পরিবহন ব্যবস্থার কথা ভাবলেন না।
ঘোষণা করলেন অফিস না এলে বেতন কেটে নেবেন! এখন আবার বলছেন দুটো সিফটে কাজ করতে! এই সরকারের আসলে নিদিষ্ট কোনও পরিকল্পনা নেই,মহম্মদ বিন তুঘলক এর মতো রাজত্ব চলছে!”

বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই বিজ্ঞপ্তি জারি করে নবান্ন জানিয়ে দেয়, এবার থেকে এই শিফট মেনেই তৈরি করা হবে কর্মীদের রোস্টার। তবে যে সব অফিসাররা অফিসের গাড়িতে যাতায়াত করেন তাঁদের জন্য কোনও শিফট ভাগ থাকবে না।


রূপান্তরকামী আইনজীবী ও নৃত্যশিল্পী মেঘ সায়ন্তনীর গল্প: Watch On Kolorob

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও