স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরীকে বিধানসভায় স্মারক দিয়ে অভিনন্দন জানাবেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান৷ আজ, বুধবার এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা মান্নান। প্রদেশ সভাপতিও সেই অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন বলে খবর৷ এছাড়াও বামফ্রন্টের নেতাদেরও এই অনুষ্ঠানে থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে৷ তবে একই অনুষ্ঠানে সোমেন মিত্র, অধীর চৌধুরী ও আব্দুল মান্নান দেখতে পাওয়াটা রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের কাছে বিরল৷

সোমেন মিত্র সভাপতি হওয়ার পর থেকেই প্রদেশ কংগ্রেসের কর্মসূচি এড়িয়ে চলেন অধীর চৌধুরী-আব্দুল মান্নানরা৷ অধীর চৌধুরী কলকাতায় এলে দলীয় কার্যালয় বিধানভবনে না বসে অন্য অফিসে বসেন৷ বিরোধী দলনেতা হওয়ার সুবাদে মান্নানও বিধানসভা থেকেই তাঁর অধিকাংশ কাজকর্ম সামলান৷ অধীর-মান্নান গোষ্ঠীর সঙ্গে সোমেন গোষ্ঠীর সম্পর্ক যে আদায়-কাঁচকলায় সেকথা প্রদেশ কংগ্রেসের ‘ওপেন সিক্রেট’৷

বিধানভবন সূত্রের খবর, লোকসভার দলনেতা নির্বাচিত হওয়ার পর প্রদেশ কংগ্রেসের তরফেও অধীরকে সংবর্ধনা দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি সেই প্রস্তাব এড়িয়ে দিয়েছেন৷ গোষ্ঠী-বিতর্কের কারণে অধীর তাতে সাড়া পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।

তবে বুধবার নিজেদের কোন্দলকে দূরে সরিয়ে এক জায়গায় আসছেন এই তিনজন৷ তবে শুধু সোমেন মিত্রকেই নয়, কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতানেত্রীকেও আমন্ত্রণ পাঠিয়েছেন এই সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানের প্রধান উদ্যোক্তা আব্দুল মান্নান। তবে সোমেন মিত্রর সম্পর্কের অবনতির পরও তাঁকে মান্নানের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে রাজনৈতিক মহল৷ এদিন অধীর-অভ্যর্থনায় হাজির থাকবেন বিধানসভার পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তীও৷