নয়াদিল্লি: পরিবারের সঙ্গে ইদ পালন করতে জম্মু ও কাশ্মীরে গিয়েছিলেন এক সেনা জওয়ান, তবে রবিবার সন্ধ্যা থেকে তিনি নিখোঁজ। ইদের ছুটিতে সোপিয়ানে পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তিনি এবং সেখানেই জঙ্গিরা তাঁকে অপহরণ করেছে বলে জানাচ্ছে ভারতীয় সেনা।

রাইফেলম্যান শাকির মানজুর ১৬২ ব্যাটেলিয়নের সদস্য। #TerrorismFreeKashmir হ্যাশট্যাগ দিয়ে ট্যুইট করে ভারতীয় সেনা জানিয়েছে, “১৬২ ব্যাটেলিয়নের রাইফেলম্যান শাকির মানজুর রবিবার বিকেল ৫টা থেকে নিখোঁজ। পরিত্যক্ত পুড়ে যাওয়া গাড়িটি কুলগাঁও এলাকায় পাওয়া গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে জঙ্গিরা তাঁকে অপহরণ করেছে। তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে”।

কুলগাঁও জেলার পার্শ্ববর্তী এলাকা রামভামা থেকে শাকির মানজুরের পরিত্যক্ত পুড়ে যাওয়া গাড়িটি পাওয়া গিয়েছে। তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে এবং তাঁর পরিবার অনুরোধ জানিয়েছে, শাকির মানজুরের যেন কোনও ক্ষতি না হয়।

অযোধ্যা রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ভূমি পূজো হবে আগামী ৫ আগস্ট। এছাড়া সেদিনই কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের বর্ষপূর্তি। তবে তার আগেই ভারতে হামলা চালাতে পারে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরা। জানা গিয়েছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ও সেনার স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপ এই কাজের উদ্দেশে আফগানিস্তানে ২০ জন লস্কর ও জইশ জঙ্গিকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের প্রতিশোধ হিসাবে এই হামলার ছক কষা হচ্ছে বলে মত গোয়েন্দাদের।

কাশ্মীরে কুলগামে সেনা জওয়ানকে অপহরণ। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় তার গাড়িতে। অপহরণের পেছনে জঙ্গিদের হাত রয়েছে বলে সন্দেহ। শাকির মনজুর নামে ওই জওয়ানকে বাড়ি থেকেই অপহরণ করা হয় বলে খবর। গোটা এলাকা জুড়ে শুরু হয়েছে চিরুনি তল্লাশি।

জুন মাসের ১৫ তারিখ কাশ্মীরের সোপোরে বিজেপির নেতা তথা স্থানীয় মিনউনিসিপাল নেতা মেহরাজউদ্দিন মাল্লাকে অপহরণ করে জঙ্গিরা। ঘটনাটি সামনে আসতেই পুলিশ সেই নেতার খোঁজে তল্লাশি শুরু করে। জানা যায় মেহরাজউদ্দিন মাল্লা স্থানীয় ওয়াথআরগাঁও গ্রামের মিউনিসিপাল কাউন্সিলের ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তবে এখনও পর্যন্ত তাঁর কোনও খোঁজ মেলেনি।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও