আপনি কি জানেন আপনার রোজ ১০০ মিনিটের ঘুম কেড়ে নিচ্ছে ফেসবুক!

ঘুম থেকে ওঠা থেকে শুরু করে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পর্যন্ত, ফেসবুক ওপেন করে বসে না এখন এমন লোক খুজে পাওয়া মুস্কিল। একটি গবেষণা সংস্থা থেকে জানা গিয়েছে, এই সোশ্যাল সাইটের কারণে প্রতিদিনে গড়ে ১০০ মিনিট ঘুমের সময় নষ্ট হচ্ছে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে রাতে শোয়ার আগে অন্তত একবার হলেও ফেসবুক, টুইটার আর হোয়াটসঅ্যাপে অন থাকে ইন্টারনেট ইউজাররা। যদি কোনও কারণে ইউজার অন হতে না পারে তবে কি অপূর্ণ থেকে যায় তাদের কাছে!

কখন ভেবে দেখেছেন এই করতে গিয়ে কতটা সময় নষ্ট হয়ে যায়। মোবাইলের স্ক্রিনে একবার চোখ আটকে গেলেই হলো! অফ করবো, অফ করবো করে শেষ হয়ে যায় অনেকটা সময়। এই সমস্যায় জর্জরিত বিশ্বের সব মানুষ। বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড নিউরো সায়েন্স’র গবেষকরা এ নিয়ে সম্প্রতি একটি গবেষণা করেছেন। গবেষণায় দেখা যায়, অত্যধিক পরিমাণে ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে নষ্ট হচ্ছে মানুষের ঘুমের সময়। আর সেই সময়টা আবার ফেলে দেওয়ার মতো নয়। সোশ্যাল সাইটের নেশা প্রতিদিন গড়ে কেড়ে নিচ্ছে একেকজন ইউজারের ১০০ মিনিটের ঘুম। আর সেটা তাদের অজান্তেই।

ওই গবেষণায় আরো দেখা গিয়েছে, ইন্টারনেটের নেশার কারণে ঘুম থেকে উঠতেও একেকজনের গড়ে দেরি হয় প্রায় ৯০ মিনিট। চিকিৎসকদের মতে, এভাবে দীর্ঘদিন ঘুমের সমস্যা চলতে থাকলে দেখা দিতে পারে হৃদরোগ এবং অ্যাংজাইটির সমস্যা। এর আগে ২০১৫ সালের আরেক গবেষণায় দেখা যায়, যেসব কম বয়সী রোগী হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়, তাদের ৯০ শতাংশই পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে পারেন না।