স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: ‘শোভনের ব্যাপারে অকাম্য কিছুই ঘটেনি৷ সবটাই সময়ের অপেক্ষায় রয়েছে৷’ কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সম্পর্কে এই মন্তব্য করলেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়৷

সোমবার দক্ষিণ দিনাজপুরের সরকারি একটি অনুষ্ঠানে হাজির সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে বহু চর্চিত শোভন চট্টোপাধ্যায় সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘বিষয়টি নিয়ে এই মুহূর্তেই স্পষ্ট করে কিছু বলার নেই। শোভন চট্টোপাধ্যায় তাঁর বক্তব্য যেমন বলেছেন। তেমনই অন্যরাও তাঁর বক্তব্য শুনেছেন মাত্র। পুরো বিষয়টি দলের উপর মহলে আলোচিত হচ্ছে৷ এব্যাপারে আলাদা করে কিছুই বলার নেই।’’ পাশাপাশি পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়নমন্ত্রী এদিন কথাও বলেন, ‘‘এখনও পর্যন্ত অকাম্য কিছুই হয়নি৷ তবে সত্যিকারের কিছু হলে অবশ্যই সবাই তা দেখতে পাবেন৷’’

তবে, বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার পুরসভার বাজেট অধিবেশনে জবাবী ভাষণ দেওয়ার পরই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেবেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর পদত্যাগপত্র তৈরি হয়ে গিয়েছে৷ এদিকে, তৃণমূল সূত্রের খবর, মেয়র পদ থেকে তিনি নিজে ইস্তফা না দিলে তাঁর বিরুদ্ধে পুরসভায় অনাস্থা প্রস্তাব আনা হতে পারে৷

বেশকিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিতে পারেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ বিশেষ করে সেই কানাঘুষো আরও জোরালো হয় তাঁর নিরাপত্তা কমিয়ে দেওয়ার পর থেকে৷ শুক্রবার নজরুল মঞ্চে দলের কোর কমিটির বৈঠকে তাঁর অনুপস্থিতি সেই জল্পনা আরও কয়েকগুন বাড়িয়ে দেয়৷ শনিবার পুরসভার বাজেট পেশের দিন মেয়র তাঁর পদত্যাগের জল্পনা উড়িয়ে দিলেও তৃণমূলের অন্দরের জোর খবর, দিদির সংসারে আর কাননের জায়গা নেই৷ দলও তাঁকে সেটা ভাল করে বুঝিয়ে দিয়েছে৷

এই মুহূর্তে তিনটি দফতর রয়েছে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের হাতে৷ সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহেই তিনি ইস্তফা দিচ্ছেন মন্ত্রিত্ব থেকে৷ তবে মেয়র পদ থেকে তিনি এই সপ্তাহেই সরছেন কিনা তা বুধবার অর্থাৎ পুরসভার বাজেট অধিবেশনের শেষ দিনে স্পষ্ট হয়ে যাবে৷