স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি : অন্ধকার রাস্তার ধারে কুন্ডুলি পাকিয়ে ছিলো ব্যান্ডেড ক্রেট। মোবাইলের আলো ফেলতেই হাড় হিম হয়ে গেলো সর্বানী দেবীর।

সপ্তমীর রাতে প্রতিমা দর্শন করতে রাস্তায় বেরিয়েছিলেন জলপাইগুড়ি ফায়ার ব্রিগেড সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা সর্বানী চক্রবর্তী।

তার বাড়ির পাশে অন্ধকার রাস্তায় মোবাইলের আলো ফেলে হাটছিলেন তিনি। আচমকাই তিনি দেখতে পান হলুদ কালো ডোরাকাটা ফিতের মতো কিছু পড়ে আছে।

সর্বানী চক্রবর্তী জানান, ভালো করে লক্ষ করতেই তিনি দেখেন সেটি নড়ছে। তখন তিনি বুঝে যান এটি একটি ব্যান্ডেড ক্রেট স্নেক। সাথে সাথে তিনি খবর দেন জলপাত্র ওয়াইল্ড লিফ নামে এক পরিবেশ প্রেমী সংগঠনে। খবর পাবার সাথে সাথে সংগঠনের কর্মী দেবার্ঘ্য রক্ষিত জুন গুহ নামে এক মহিলা পরিবেশ কর্মীকে সাথে নিয়ে ছুটে আসেন। তারা দুজনে মিলে সাপটিকে উদ্ধার করেন।

দেবার্ঘ্য রক্ষিত বলেন এটি একটি ব্যান্ডেড ক্রেট স্নেক। অত্যন্ত বিষধর প্রজাতির সাপ। এটিকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I