কোয়েম্বাটুর : নোট সঙ্কটে বিপাকে পড়লেন খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিজেই। মুচিকে দিতে পারলেন না খুচরো। মুচি তাই অকারণেই আরও কয়েকটি সেলাই করাতে হল। বিপাকে পড়া এই মন্ত্রীর আর কেউ নন, স্বয়ং স্মৃতি ইরানি।

শনিবার কোয়েম্বাটুরে একটি সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। অনুষ্ঠান শেষে কোয়েম্বাটুর বিমানবন্দরে ঢোকার সময় জুতো ছিঁড়ে যায় তাঁর। চটজলদি এয়ারপোর্ট থেকে বেরিয়ে কাছাকাছি একটি মুচির দোকানে যান জুতো সেলাই করাতে। সেলাই হয়ে যাওয়ার মুচি বলেন, ১০ টাকা দিতে। স্মৃতি ইরানি তাঁকে ১০০ টাকার নোট দিয়ে বলেন, খুচরো দিন। জনৈক মুচি সাফ জানিয়ে দেয় সে তিনি যে মন্ত্রীই হোন না কেন ১০০ টাকার খুচরো তিনি দিতে পারবেন না। আসলে খুচরো থাকলে তবে তো দেবেন! বিষয়টি আরও হাস্যকর হয় যখন স্মৃতি তাঁকে বলেন, ১০০ টাকাই রেখে দিতে। নিরুপায় হয়ে শেষে লজ্জার খাতিরে মুচি স্মৃতির সেলাই করা জুতোয় আরও কয়েকটি সেলাই জুড়ে দেন। এবার ডবল সেলাইয়ে জুতো কতটা শক্ত হল বলা মুশকিল তবে ভাইরাল হয়ে যাওয়া এই কাণ্ডে একটু হলেও লজ্জায় পড়ল কেন্দ্র এটুকু নিশ্চিত।