নয়াদিল্লিঃ  দেশের বিদ্যুৎ ক্ষেত্রকে চাঙ্গা করতে উদ্যোগী মোদী সরকার। আর সেজন্যে দেশের সমস্ত বাড়ি এবং ব্যবসায়ীক ক্ষেত্রে বিদ্যুতে স্মার্ট মিটার লাগানোর ভাবনা চিন্তা করছে মোদী সরকার। আগামী তিন বছরের মধ্যে এই অসাধ্য সাধন করার ভাবনা সরকারের। এমনটাই বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে।

প্রকাশিত খবর মোতাবেক, প্রাথমিকভাবে দেশের ৩০ কোটি এই স্মার্ট মিটার বসানোর পরিকল্পনা। এই পরিকল্পনা বাস্তব করতে ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রক মিটার নির্মাণকারী বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে। বিদ্যুতে স্মার্ট মিটার বসানো হলে বিদ্যুৎ ব্যবহার ক্ষেত্রে যেমন নজরদারি বৃদ্ধি করা সম্ভব, তেমনই বিদ্যুৎ ব্যবহার সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানা যাবে বলে মনে করছেন অনেকে।

দীর্ঘদিন ধরেই স্মার্ট মিটারের পক্ষে জোরাল সওয়াল করেছে মোদী সরকার। অবশেষে এই বিষয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করল সরকার। জানা যাচ্ছে, সরকারের প্রাথমিক হিসাবে একটি স্মার্ট মিটারের খরচ প্রায় ২,০০০ টাকা। সেই হিসাবে ৩০ কোটি স্মার্ট মিটার বসাতে মোট খরচ হতে পারে ৬০,০০০ কোটি টাকার মতো। এমনটাই বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে দাবি করা হয়েছে।

প্রকাশিত খবর মোতাবেক, এর আগেও স্মার্ট মিটার বসানোর ক্ষেত্রে টেন্ডার ডেকেছিল। ২০১৭ সালে ৫০ লক্ষ স্মার্ট মিটারের জন্যে এই টেন্ডার ডাকা হয়েছিল। সেক্ষেত্রে প্রতি মিটারের দাম পড়েছিল ২,৫০৩ কোটি টাকা। তার নিরিখে এবার দাম কম পড়বে বলেই অনুমান সরকারের। যদিও এখনও এই বিষয়ে সরকারের তরফে এই বিষয়ে কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে পুরো বিষয়টিই ভাবনা চিন্তার মধ্যে রয়েছে বলে দিল্লির অন্দরে শোনা যাচ্ছে।