এখন পশ্চিমবঙ্গবাসী এমন এক কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে চলছে যেখানে বেশিরভাগেরই মনের মধ্যে অবসাদ গ্রাস করেছে। দু সপ্তাহের এই লকডাউন এর ফলে অনেকেই নানারকম দুশ্চিন্তায় রয়েছেন।

এর প্রভাব সরাসরি পরিচয় শরীরের উপরে আর তা সবার আগে ফুটে ওঠে আমাদের ত্বকে। তাই শরীরের পাশাপাশি ত্বকের যত্ন নেওয়াটা ও জরুরি এই সময়।

অনেকেই ভাবেন লকডাউনে যেহেতু বাড়িতেই বসে রয়েছেন তাই রোদের তাপ লাগছে না এবং বাইরের ধুলো-ময়লা থেকে মুক্তি পাচ্ছেন। তবে বাড়িতে বসেও এই সময় নিজের ত্বকের যত্ন আপনাকে নিতে হবে।

মাত্র পাঁচটি অভ্যেস প্রতিদিনের রুটিনে রাখুন।

আরো পোস্ট-উপযুক্ত প্রমাণের অভাব, আল জাজিরার তথ্যচিত্রে সন্দেহভাজন পাঁচ ক্রিকেটারকে ক্লিনচিট

১. এই সময় আপনি বাড়িতে থাকলেও সানস্ক্রিন (sunscreen) মাখতে হবে। বাড়ির ভেতরে সূর্যের আলো প্রবেশ করে।

সেই তাপ থেকে ইউভি রশ্মি (u-v ray) আমাদের ত্বকে শোষিত হলে আমাদের ত্বকে নানা সমস্যা এমনকি ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে। তাই এই ইউভি রশ্মি (u-v ray) প্রতিরোধ করতে পারে এমন সানস্ক্রিন (sunscreen) ব্যবহার করুন।

বাড়িতে থাকলেও প্রতিদিন দুই থেকে তিন ঘণ্টা অন্তর সানস্ক্রিন (sunscreen) লাগাতে হবে।

২. লক ডাউনে যেহেতু আপনি বাইরে বের হচ্ছেন না তাই হয়তো মনে হচ্ছে বাইরের ধুলো-ময়লা আপনার ত্বকে এসে পৌঁছাচ্ছে না। তবে বাড়িতে থাকলেও কিছুটা হলেও বাড়ির কাজ করতে গিয়েও ধুলো-ময়লা আপনার ত্বকে লাগে।

এ থেকে মুক্তি পেতে কোন ফেসপ্যাক নয়, পরিষ্কার জলে দিনে দুবার মুখ ধুতে হবে। এমনকি আপনি যে ফোন ব্যবহার করছেন তার থেকে নানারকম জীবাণু আপনার হাতে লাগছে।

তা সরাসরি আপনার শরীরে ঢুকে যেতে পারে। এমনকি আপনার ত্বকে অ্যালার্জি বা ইনফেকশন skin allergy হতে পারে।

তাছাড়া ও এখন যেহেতু গরমকাল তাই ত্বককে আদ্র এবং ঠান্ডা রাখতে মুখ ধোয়াটা খুবই জরুরী।

৩. যেহেতু প্রতিদিন একটু একটু করে আপনার বয়স বাড়ছে তাই ত্বক থেকে মৃত কোষ উঠে যাওয়ার পদ্ধতিতে সহজভাবে হয় না। এর ফলে ত্বকের ওপরে বলিরেখা এবং বার্ধক্যের ছাপ পড়ে যায়।

ত্বকের স্বাভাবিক জেল্লাও নষ্ট হয়ে যায়। তাই সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ত্বককে এক্সফলিয়েট (skin exfoliation) করতে হবে।

৪. মানসিক চাপে আমাদের ত্বকের উপরে একটা প্রভাব পড়ে। তাই সাত দিনের মধ্যে অন্তত দু’দিন সময় বের করে ত্বককে ডিটক্স (detox) করুন।

বাড়িতেও বিভিন্ন ফেস প্যাক (detox facepack) বানাতে পারেন। এতে আপনার ত্বক থেকে ময়লা শোষণ করে নেবে এবং রোমকূপগুলি আবার জেগে উঠবে।

৫. পার্লার যেতে পারছেন না মানে এই নয় যে পার্লারের ট্রিটমেন্ট আপনি বাড়িতে করতে পারবেন না। মাঝে মাঝে হালকা হাতে ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে।

তার সঙ্গে ছোট্ট করে একটি ফেসিয়াল (facial) করতে পারেন। বিভিন্ন সবজি বা ফল দিয়ে ফেসিয়াল মাস্ক (facial) বানানো যায়।

এতে আপনার ত্বকের উপর থেকে সমস্ত ময়লা, বলিরেখা ও দুশ্চিন্তার ছাপ চলে যাবে এবং ত্বক তার স্বাভাবিক জেল্লা ফিরে পাবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.