কলকাতা: আই লিগ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেওয়া ফুটবলারদের থেকে খুব বেশি ফুটবলারকে নয়া এন্টিটির হয়ে খেলানোর সুযোগ একেবারেই নেই। তবে যতোটা সম্ভব আই লিগ জয়ী দলের কিছু দেশীয় সদস্যকে আসন্ন মরশুমে আইএসএল দলে নেওয়ার চেষ্টা করছে মোহনবাগান। সেই লক্ষ্যেই তরুণ প্রতিশ্রুতিমান মিডফিল্ডার শেখ সাহিলের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করল এটিকে-মোহনবাগান। তিন বছরের জন্য সাহিলকে দলে নিল আইএসএলে নবরূপে আত্মপ্রকাশ করতে চলা এটিকে-মোহনবাগান।

২০১৯-২০ আই লিগে মোহনবাগানের লিগ জয়ে ভূমিকা নেওয়ার পর অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাসের প্রশিক্ষণে আসন্ন মরশুমে এটিকে-মোহনবাগানে সাহিলের ফুটবল দক্ষতা এবার প্রস্ফুটিত হওয়ার পালা। সাহিল ছাড়া শুভ ঘোষ, দীপ সাহার মত আরও প্রতিশ্রুতিমান তরুণ ফুটবলারদের দলে নেওয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে এটিকে-মোহনবাগান। যদিও সেই বিষয়টা আলোচনা স্তরে থাকলেও সাহিলকে চূড়ান্ত করল তারা।

আরও পড়ুন: মানবিক মোহনবাগান কর্তারা, চার মাস পর দেশে ফিরলেন পাপা দিওয়ারা

নিজেদের অ্যাকাডেমির প্রোডাক্ট সাহিলকে দলে নিতে পারে এটিকে-মোহনবাগান। কয়েক সপ্তাহ ধরেই চলছিল এমনই জল্পনা। অবশেষে সোমবার সেই জল্পনায় সিলমোহর পড়ল। ২০২৩ অবধি এটিকে-মোহনবাগানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে সাহিল জানিয়েছেন, ‘দেশের সর্বোচ্চ ফুটবল প্রতিযোগীতায় আমার ছেলেবেলার ক্লাব এবং কলকাতাকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারাটা আমার কাছে অত্যন্ত সম্মানের। আমি অত্যন্ত উত্তেজিত এটিকে-মোহনবাগানের হয়ে মাঠে নামতে।’

আরও পড়ুন: কোয়ার্টার ফাইনালের আগে অ্যাটলেটিকো শিবিরে করোনার হানা, আক্রান্ত ২

উল্লেখ্য, কলকাতা মরশুমে ভালো পারফরম্যান্স করে গত মরশুমে মোহনবাগানের স্প্যানিশ কোচ কিবু ভিকুনার নজর কেড়েছিলেন সাহিল। এরপর আই লিগে সিনিয়র দলের নিয়মিত সদস্য হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। আই লিগের ১৩টি ম্যাচে ভিকুনার প্রথম একাদশে শুরু করেন সাহিল। এরপর ধীরে-ধীরে ভিকুনার আস্থা অর্জন করে নেওয়া সাহিল দলের আই লিগ জয়ের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে ওঠেন। এবার দেখার ভিকুনার মতো হাবাসেরও আস্থা অর্জন করতে পারেন কীনা সাহিল।

আরও পড়ুন: ‘পঞ্চাশ থেকে বেড়ে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল খেলার সম্ভাবনা এখন ৮০ শতাংশ’

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা