নয়া দিল্লি: লাইন অব কন্ট্রোল-এ যে কোনও মুহূর্তে বিগড়ে যেতে পারে পরিস্থিতি, এমনটাই জানাচ্ছেন বিদায়ী সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। তবে তিনি জানিয়েছেন, যে কোনও সময় পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে তৈরি ভারতীয় সেনাবাহিনীও।

এমন সময় এলওসি-র এই ঘটনা সামনে আসল যখন বারবার সীমা লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান। চলতি বছরের অগস্ট থেকেই সীমান্তে গুলিবর্ষণের ঘটনা লাগাতার বৃদ্ধি পেয়েছে। উল্লেখ্য, এই অগস্টেই কেন্দ্রের তরফে জম্মু কাশ্মীরে বিশেষ সুবিধা গুলি লোপ করা হয়েছিল।

একদিকে পাকিস্তান জম্মু কাশ্মীরের ইস্যুটিকে বিভিন্ন জায়গায় তুলে ধরে তাদের দিকে সমর্থন টানার চেষ্টা করছে। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জি কিষাণ জানিয়েছেন, অগস্ট থেকে অক্টোবর মাস অবধি ৯৫০ বার সীমানা অতিক্রম করেছে পাকিস্তান।

উল্লেখ্য, ৩১ ডিসেম্বর অবসর নিচ্ছেন সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াত। তার আগেই সীমান্ত উত্তপ্ত হতে পারে বলে জানালেন তিনি। ফলে ফের একবার ভারত-পাক সীমান্তের দিকে তাকিয়ে দেশবাসী।

মঙ্গলবারও অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাতে গিয়ে ভারতীয় সেনার হাতে মৃত্যু হয় দুই পাক সেনার। কাশ্মীরে পুঞ্চ সেক্টরে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় এক ভারতীয় সেনাও শহিদ হয়েছেন। দুই পক্ষ থেকে রকেট লঞ্চার ও অ্যান্টি ট্যাংক গাইডেড মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, পাকিস্তানি স্পেশাল সার্ভিসের একটি দল ভারতীয় সেনাকে লক্ষ্য করে আক্রমণ চালাতে যায়, সেইসময়ই এই ঘটনা ঘটে।