নয়াদিল্লি: পাকিস্তানে সিন্ধু নদের উপরে বাঁধ তৈরির ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে চিন। এমনটাই এক সংবাদমাধ্যমে জানা গিয়েছে। ভারতের বাধা থাকায় ওই প্রজেক্ট থেকে মুখ ফিরিয়েছিল ওয়ার্ল্ড ব্যাংক ও এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। অবৈধভাবে দখল করে থাকা অধিকৃত কাশ্মীরে এই বাঁধ তৈরিতে বাধা দিয়েছিল ভারত। এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক

সূত্রের খবর, ডায়মের-ভাসা বাঁধ তৈরি করা হবে সিন্ধু নদে উপর। অধিকৃত কাশ্মীর ঘেঁষা গিলগিট-বালতিস্তানে দীর্ঘদিন ধরে একটি বাঁধ প্রকল্প করার চেষ্টা করছিল পাকিস্তান। কিন্তু ভারতের বাধায় ভেস্তে যাচ্ছিল সেই পরিকল্পনা। এমনি ওয়ার্ল্ড ব্যাংক থেকে সাহায্য পাওয়ার আশাও শেষ হয়ে এসেছিল। এবার পাকিস্তানের আশা চিন দেবে এই প্রজেক্টের টাকা। রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্ল্যানিং মিনিস্টার।

হিমালয় থেকে বয়ে যাওয়া সিন্ধু নদের উপর একটি বাঁধ প্রকল্পের পরিকল্পনা করছিল পাকিস্তান। কিন্তু ভারত বাধা দেওয়ায় টাকা পাওয়া সমস্যা হয়ে উঠছিল। বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য এবার চিনের সহযোগিতাতেই কাশ্মীরের হিমালয় পার্বত্য অঞ্চলে সিন্ধু নদে ওই বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান।পাকিস্তান-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে বুঞ্জি জলবিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণ করা হবে। ওই বাঁধ তৈরিতে খরচ হবে এক হাজার ২৬০ কোটি ডলার। সাত বছরে বাঁধটি নির্মাণ করা হবে।

প্রকল্পটি পুরোপুরি বাস্তবায়নের পর এটা থেকে কমপক্ষে সাড়ে চার হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের আশা করছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তান ও চিন এব্যাপারে একটি সমঝোতা স্মারক সই করে। এছাড়া বাঁধ নির্মাণের জন্য পাকিস্তানের পানিসম্পদ মন্ত্রক ও চীনের থ্রি জর্জেস প্রজেক্ট কর্পোরেশনের মধ্যেও একটি চুক্তি হয়েছে।