গ্লাসগো: বিশ্ব ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে হেরে প্রথমবারের জন্য কোর্টেই কাঁদলেন সিন্ধু৷ রবিবাসরীয় ফাইনালের হাড্ডহাড্ডি লড়াইয়ের পর সিন্ধুর বাবা এমনটাই জানাচ্ছেন৷ পি ভি রামানা বলেন, ‘এই প্রথমবার মেয়েকে ব্যাডমিন্টন কোর্টে কাঁদতে দেখলাম৷ ফাইনাল হারায় হতাশ হলেও ওকোহারার বিরুদ্ধে সিন্ধুর লড়াকু মনোভাবে অভিভূত৷’

আরও- হেরেও অভিনন্দন বার্তায় ভাসলেন সিন্ধু

তিনবারের চেষ্টাতেও সোনা হাত লাগল না পিভি সিন্ধুর৷ বিশ্ব ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয় থেকে এক ধাপ দূরে থেমে গেলেন ভারতের রুপোলি মেয়ে৷ রিও অলিম্পিকের পর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপেও কাছে এসেও সোনা হাতছাড়া হল হায়দরাবাদির৷ রবিবার ওকোহারার বিরুদ্ধে ১১০ মিনিটের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের শেষে সিন্ধুর পক্ষে ম্যাচের ফল ১৯-২১,২২-২০,২০-২২৷ প্রথম সেট হারলেও দ্বিতীয় সেটে প্রত্যাবর্তন করে সোনা জয়ের আশা জাগিয়েছিলেন ভারতীয় শার্টলার৷ শেষ পর্যন্ত অবশ্য শেষরক্ষা করতে পারেননি পুসারলা৷

রিও অলিম্পিকে সিন্ধুর হাত ধরেই ব্যাডমিন্টনে মেয়েদের সিঙ্গলসে রুপো জিতেছিল ভারত৷ সেম্যাচে কঠিন প্রতিপক্ষ ক্যারোলিনা মারিনের বিরুদ্ধে সোনা হাতছাড়া করলেও সিন্ধুর চোখের কোণে জল ছিল না৷ উল্টে পুসারলার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের শেষে কোর্টের মাঝে শুয়ে পড়ে কেঁদে ফেলেছিলেন স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন৷ হারের ধাক্কা কাটিয়ে হায়দরাবাদী তন্বীই ক্যারোলিনাকেকে হাত ধরে টেনে তুলে আলিঙ্গণ করেছিলেন৷

আরও- ফাইনালে স্বপ্নভঙ্গ সিন্ধুর

এবার অবশ্য ওকোহারার বিরুদ্ধে ফাইনাল হেরে কোর্টের মাঝে বেশ কিছুক্ষণ মাথা নিচু করে চুপচাপ থাকেন ভারতীয় শার্টলার৷ এরপর হারের ধাক্কা কাটিয়ে হুঁশে ফিরে হাসি মুখেই রুপোর পদক নিয়ে স্টেডিয়াম ছাড়েন তিনি৷ ২০১৩ ও ২০১৪ সালে বিশ্ব ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনালে সফর শেষ করেছিলেন সিন্ধু৷ দু’বারই বোঞ্জ জিতে দেশে ফিরেছিলেন তিনি৷

সোনা না-জিতলেও অভিনন্দন বার্তায় ভাসলেন ভারতীয় ব্যাডমিন্টন তারকা৷ প্রধানমন্ত্রী থেকে প্রেসিডেন্ট৷ ক্রিকেট থেকে বলিউড৷ সিন্ধুর প্রশংসায় পঞ্চমুখ কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী৷ রবিবার গ্লাসগোর এমিরেটস এরিনাতে জাপানি তারকা ওকুহারার কাছে পরাস্ত হন সিন্ধু৷ এবারের চ্যাম্পিয়নশিপে শুরুর আগে জানিয়েছিলেন, এ বছর পদকের রং বদলে ফেলতে মরিয়া তিনি৷ তাঁর উপর ভরসা করে ছিলেন আপামর দেশবাসীও৷ কিন্তু জাপানি প্রতিপক্ষের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হল বিশ্বের চার নম্বর সিন্ধুর৷ যদিও তাঁর এই কৃতিত্বও কম কিছু নয়, এমনটাই মত ক্রীড়ামহলের৷ তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ ব্যাডমিন্টনে রুপোর মেয়েকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ক্রীড়ামহল থেকে বলিউড৷