নয়াদিল্লি: জিএসটি রিটার্ন দাখিলে নিয়ম আরও সরলীকরণ করার আশ্বাস কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের। শনিবার দ্বিতীয় মোদী সরকারের দ্বিতীয় বাজেট পেশ করতে গিয়ে শুরুতেই প্রয়াত অর্থমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানান নির্মলা সীতারমন। জেটলির ভাবনার ফসল জিএসটি, এমনও বলেত শোনা যায় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে। এবার সেই জিএসটির ক্ষেত্রে রিটার্ন দাখিলের ক্ষেত্রে নিয়ম আরও সলরীকরণ করার কথা জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

আগামী ১ এপ্রিল থেকেই জিএসটির জন্য রিটার্ন দাখিলের ক্ষেত্রে নিয়ম আরও সরলীকরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। এদিন বাজেট পেশের সময় জিএসটি-র ‘সুফল’ নিয়ে বলতে শোনা যায় নির্মলা সীতারমনকে। জিএসটির জেরে সমাজের সব শ্রেণিই লাভবান হচ্ছেন বলে এদিন আবারও সওয়াল করেন মোদী সরকারের অর্থমন্ত্রী। জিএসটির জেরে দেশ থেকে ইন্সপেক্টর-রাজ খতম করা গিয়েছে বলে এদিন আবারও মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। পরিবহণ ও লজিস্টিক ক্ষেত্রে জিএসটির জেরে লাভ হচ্ছে বলেও দাবি নির্মলা সীতারমনের।

এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘জিএসটির জেরে দেশ থেকে এখন উধাও ইন্সপেক্টর-রাজ। পরিবহণ ক্ষেত্র ও লজিস্টিক সেক্টর লাভের মুখ দেখছে। সুবিধা পাচ্ছে দেশের একাধিক ক্ষুদ্রশিল্পও।’ জিএসটি কার্যকর হওয়ায় জন্য উপভোক্তারাও লাভবান হচ্ছেন বলে দাবি করে অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘জিএসটির জেরে উপভোক্তারা একটি আর্থিক বছরে ১ লক্ষ কোটি টাকা পর্যন্ত লাভের সুবিধা পাচ্ছেন।’

ব্যবসায়ীরা তো বটেই জিএসটি কার্যকর হওয়ায় দেশের সাধারণ মানুষও দারুণভাবে উপকৃত হচ্ছেন বলে দাবি করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। জিএসটির জেরে একটি মধ্যবিত্ত পরিবার মাসে ৪ শতাংশ খরচ কমাতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। যদিও জিএসটির ক্ষেত্রে রিটার্ন দাখিল নিয়ে একাধিক ক্ষেত্রে অসন্তোষ দেখা যায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে। চলিত বছরের ১ এপ্রিল থেকে জিএসটি নিয়ে আর কোনও অসন্তোষ থাকবে না বলেই মনে করেন নির্মলা সীতারমন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘জিএসটির ক্ষেত্রে রিটার্ন দাখিল ১ এপ্রিল থেকে আরও সরলীকরণ হবে।’

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।