কলকাতা ২৪x৭: ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি৷ পাকিস্তানের দৃষ্টিভঙ্গিতে অবিকল ১৯৯২ বিশ্বকাপের প্রতিচ্ছবি ২০১৯ বিশ্বকাপে৷ শুধু মাঠেই নয়, মাঠের বাইরেও বহু ঘটনায় মিল রয়েছে ২৭ বছর অন্তরের দু’টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের সময়ে৷ সেবার ইমরান খানের নেতৃত্বে পাকিস্তান প্রথমবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল৷ এখন কোটি টাকার প্রশ্ন হল, সরফরাজরা কি পারবে এবার বিশ্বখেতাব জিততে?

ফলাফলের ভিত্তিতে মাঠের মিল: দু’টি বিশ্বকাপের প্রথম সাতটি ম্যাচের ফলাফলের নিরিথে পাকিস্তান হুবহু একই জায়গায় রয়েছে৷ মাঠের লড়াইয়ের মিলগুলিতে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক৷

#১৯৯২ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধের হার দিয়ে অভিযান শুরু করেছিল পাকিস্তান৷ ২০১৯ বিশ্বকাপেরও ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই হারতে হয় সরফরাজদের৷

#হার থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে সেবার দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ে ফিরেছিল পাকিস্তান৷ এবারও আয়োজক ইংল্যান্ডকে দ্বিতীয় ম্যাচে পরাস্ত করে পাক দল৷

#১৯৯২ এর মতো এবারও বিশ্বকাপে পাকিস্তানের তৃতীয় ম্যাচ বৃষ্টির জন্য পরিত্যক্ত হয়৷

#সেবার চতুর্থ ও পঞ্চম ম্যাচে হারের মুখ দেখতে হয় পাকিস্তানকে, যার মধ্যে একটি ম্যাচ ছিল ভারতের বিরুদ্ধে৷ এবারও বিশ্বকাপে চতুর্থ ও পঞ্চম ম্যাচে হেরে যায় পাকিস্তান এবং তার মধ্যে একটি ম্যাচ তারা হারে ভারতের বিরুদ্ধে৷

#৯২ বিশ্বকাপে ষষ্ঠ ও সপ্তম ম্যাচে পাকিস্তান জয় তুলে নেয়৷ এবারও নিজেদের ৬ ও ৭ নম্বর ম্যাচে জয় পেয়ে যায় সরফরাজরা৷

#সেবার মার্টিন ক্রো’র নিউজিল্যান্ডের অপরাজিত থাকার ধারায় ছেদ ঘটায় পাকিস্তান৷ এবারও কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ডকে টুর্নামেন্টর প্রথম হারের স্বাদ দেয় পাকিস্তান৷

এ তো গেল ফলাফলের ভিত্তিতে পাকিস্তানের দু’টি বিশ্বকাপের মধ্যে মিল৷ টুর্নামেন্টের ফর্ম্যাটেও অদ্ভূতরকম মিল রয়েছে৷ পারফরম্যান্সগত না হলেও মাঠের কিছু ঘটনা এবং পূর্বাপর ঘটনাপরম্পরাতেও মিল রয়েছে প্রচুর৷

#প্রথমত, দু’টি টুর্নামেন্টই হচ্ছে রাউন্ড রবিন লিগে৷ অর্থাৎ প্রতিটা দল বাকি সবক’টি দলের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে৷ এবং লিগের প্রথম চারটি দল সেমিফাইনাল খেলবে৷ সেমিফাইনাল খেলা হবে ১-৪, ২-৩ ভিত্তিতে৷ অর্থাৎ লিগে এক নম্বরে থাকা দল সেমিফাইনাল খেলবে চার নম্বর দলর সঙ্গে৷ দ্বিতীয় দল সেমিফাইনাল খেলবে তৃতীয় দলের বিরুদ্ধে৷

#কাকতলীয়ভাবে সেবারও প্রতি ইনিংসে দুই প্রান্ত দিয়ে দু’টি নতুন বলে খেলা হয়েছিল৷ এবারও ঠিক তাই৷ প্রতি ইনিংসে দু’টি করে নতুন বল ব্যবহার করা হচ্ছে৷

#৯২ বিশ্বকাপে ইনজামাম উল হক ছিলেন উঠতি তারকা৷ এবার ইনজির ভাইপো ইমাম উল হক হলেন পাকিস্তানের তরুণ তুর্কি৷

#১৯৯২ বিশ্বকাপের ষষ্ঠ ম্যাচে বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান আমির সোহেল ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন৷ এবার ষষ্ঠ ম্যাচের সেরা হয়েছেন পাকিস্তানের বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান হ্যারিস সোহেল

#১৯৯২ বিশ্বকাপের আগের দু’টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত (১৯৮৩) ও অস্ট্রেলিয়া (১৯৮৭)৷ চলতি বিশ্বকাপের (২০১৯) ঠিক আগের দু’টি বিশ্বকাপ জিতেছে যথাক্রমে ভারত (২০১১) ও অস্ট্রেলিয়া (২০১৫)৷

#১৯৯২ বিশ্বকাপের সময় প্রাক্তন আসিফ আলি জারদারি জেলে ছিলেন৷ চলতি বিশ্বকাপের সয়েও তিনি রয়েছেন কারাবন্দি৷

#১৯৯২ সালে আলাদিনের কার্টুন ফিল্ম প্রকাশিত হয়েছিল৷ এবারও ঠিক সেরকমই আলাদিনের চলচিত্র প্রকাশিত হয়েছে৷

তবে কি ইমরান খানের পর এবং বিশ্বকাপের ট্রফি উঠতে চলেছে পাক অধিনায়ক সরফরাজের আহমেদের হাতে? সময়ই এই প্রশ্নের উত্তর দেবে৷