স্টাফ রিপোর্টার, শিলিগুড়ি: করোনা আতঙ্কে কাঁপতে শুরু করেছে গোটা দেশ। এরই মধ্যে আতঙ্ক ছড়াল শিলিগুড়ির ব্যবসায়ী পরিবারের। কিছুদিন আগেই বিয়ের কেনাকাটা করতে সপরিবারে জয়পুরে যান শিলিগুড়ির ব্যবসায়ী রাজেশ গর্গ। জয়পুরে গিয়ে পাঁচতারা হোটেলে রাত কাটান তারা। জয়পুর বিমানবন্দরে নেমে বিমানবন্দরের কাছাকাছি রামাদা হোটেলে ওঠে ওই ব্যবসায়ীর পরিবার।

এরপর স্থানীয় সংবাদপত্রে চোখে পড়ে দিল্লির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক বুধবার যে পর্যটকদলের ১৫ জনকে করোনা আক্রান্ত বলে ঘোষণা করেছে ওই দলটি রামাদা হোটেলেই গত কয়েকদিন ধরে ছিল। পয়লা মার্চ পর্যটকদের ওই দলটি হোটেল ছেড়ে দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। দলটিকে চিহ্নিত করার পর দিল্লির স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে ওই হোটেলের কাছে খবর পাঠানো হয়। হোটেলের প্রতিটি রুম যেন তারা জীবাণুমুক্ত করেন তড়িঘড়ি– এই মর্মে নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি বলেই রাজেশবাবুর অভিযোগ।

রাজেশ গর্গের মতে, হোটেল কর্তৃপক্ষ এই খবর চেপে যায়। বাইরে থেকে কেউ এলে তাদের জানতে দেওয়া হয়নি এই ঘটনার কথা। এরপরেই ফেসবুকে ক্ষোভ উগড়ে দেন রাজেশ গর্গ এবং তার সঙ্গী উত্তম গোয়েল। তারা হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চান করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ওই ১৫ জন রামাদা হোটেলের কোন কোন রুমে ছিলেন? তবে হোটেল কর্তৃপক্ষ সে ব্যাপারে সঠিক কোনও তথ্য দিতে পারেনি।

 

এরপরেই জয়পুর পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান রাজেশবাবু। তিন ঘণ্টা বাদে রামাদা হোটেলে পুলিশ এলেও কোন উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ। রামাদা হোটেলের পক্ষ থেকেও এই বিষয়ে নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।