নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ঘণ্টা কয়েক আগেই তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন৷ ছয় বছরের জন্য দল থেকে সাসপেণ্ড করা হয়েছে মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়কে৷ তারপরেই বিস্ফোরক তথ্য বারাকপুরের জয়ী বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের৷

শুভ্রাংশুর বহিষ্কার হওয়ার খবর শুনে সাংবাদিকদের সামনে সহাস্য জবাব অর্জুনের৷ হাসতে হাসতেই পরিস্কার জানিয়ে দিলেন শুভ্রাংশু বিজেপিতে আসবে৷ ভারতীয় জনতা পার্টির দরজা ওর জন্য সব সময় খোলা রয়েছে৷ ছয় বছরের জন্যই দল ওকে সাসপেণ্ড করেছে৷ এখনই তো বিজেপিতে আসার সুযোগ পেল শুভ্রাংশু৷ ওকে স্বাগত৷

আরও পড়ুন : বিপদে পড়তে হতে পারে, শুভ্রাংশুকে সতর্ক করলেন মুকুল

এদিকে, দলবিরোধী মন্তব্যের জন্য দলের রোষে পড়েছেন শুভ্রাংশু৷ যদিও তা স্বীকার করতে রাজি নন তিনি৷ তাঁর দাবি, দল বিরোধী মন্তব্য নয়, আত্মসমালোচনা করতে গিয়েছিলেন তিনি৷

লোকসভা নির্বাচনের ফল সামনে আসার পরই মুকুল রায়ের ছেলেকে দল থেকে বহিষ্কার করে তৃণমূল৷ ৬ বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয় বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের ছেলে তথা বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়কে। তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘দীর্ঘদিন ধরেই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছিল বীজপুরের বিধায়কের কার্যকলাপ৷ কখনও সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কিত পোস্ট, আবার কখনও তিনি বেফাঁস মন্তব্য করেছেন৷ যা দল অনুমোদন করে না৷’’

আরও পড়ুন : পরাজয়ের দায় নিয়ে ইস্তফা জেলা কংগ্রেস সভাপতির

২০১৭ সালে তৃণমূল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লেখান মুকুল রায়৷ তারপর থেকেই জোডা়ফুল শিবিরের নিশানায় বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক তথা মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু৷ নানা সময়ে তাঁকে বিভিন্ন মন্তব্যের মুখোমুখি হতে হয়েছে৷ প্রশ্ন তোলা হয়েছে দলের প্রতি তাঁর আনুগত্য নিয়ে৷

সেই বিরক্তি দেখিয়ে তৃণমূলকে বিঁধে এদিন দুপুরে শুভ্রাংশু বলেন, ‘‘বারাকপুর লোকসভায় বীজপুর থেকে লিড দেব বলেছিলাম৷ কিন্তু তা হয়নি৷ বাবার কাছে হেরে গিয়েছি বীজপুরে ও বারাকপুর লোকসভায়৷ বাবাকে মানুষ বেছে নিয়েছেন৷ ভুলে গিয়েছিলাম মুকুল রায়ও ভূমিপুত্র৷’’ তারপরেই দলের রোষে পড়েন শুভ্রাংশ৷ সাসপেণ্ড করা হয়ে তাঁকে৷