মুম্বই: কেরিয়ারের মধ্যগগনে রয়েছেন শ্রদ্ধা কাপুর। স্ত্রী, ছিছোরে ও সাহো, এই তিনটি ছবিই বক্স অফিসে ভাল কাজ করেছে। স্ত্রী ও ছিছোরে ছবিতে শ্রদ্ধার অভিনয়ও প্রশংসা কুড়িয়েছে। কিন্তু এক সময়ে উদ্বেগের শিকার হয়েছিলেন তিনি। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকারে এমনই জানিয়েছেন তিনি।

আশিকি ২ ছবির ঠিক পরেই অ্যানজাইটি জাঁকিয়ে বসেছিল শ্রদ্ধার উপরে। নিজেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। জীবনের সেই সময়ের কথা বলতে গিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন তিনি। শ্রদ্ধা বলছেন, আমি জানতাম না উদ্বেগ বা অ্য়ানজাইটি বিষয়টা ঠিক কেমন। আশিকির ঠিক পরেই অ্যানজাইটির শিকার হই আমি। আমার শরীরে কিছু সমস্যা হতো। এক অদ্ভুত ব্যথা হতো। কিন্তু সমস্ত রকমের পরীক্ষা করিয়েও কিছুই সমস্যা পাওয়া যায়নি রিপোর্টে। ব্যাপারটা অদ্ভুত কারণ আমি বুঝতে পারছিলাম না ব্যথাটা ঠিক কেন হচ্ছে। তার পরেই নিজেকেই জিজ্ঞাসা করতে থাকি, ব্যথাটা ঠিক কেন হচ্ছে!

এভাবেই ধীরে ধীরে বুঝতে পারেন, তিনি অ্যানজাইটির শিকার। শ্রদ্ধা জানান এখনও মাঝে মাঝে অ্যানজাইটির চেপে ধরে তাঁকে। কিন্তু এখন তিনি জানেন বিষয়টির সঙ্গে কী ভাবে বোঝাপড়া করতে হয়।

শ্রদ্ধা এই প্রসঙ্গে বলেন, এখনও আমি বিষয়টির সঙ্গে বোঝাপড়া করি। কিন্তু এখন ব্যাপারটা আগের থেকে অনেক সহজ হয়ে গিয়েছে। আর কোথাও গিয়ে এটা গ্রহণ করে নেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় থাকে না। কিন্তু গ্রহণ করার সঙ্গেই নিজেকে ভালোবাসতে হবে। এটাই কাজে দেয়। তোমার অ্যানজাইটি থাকুক বা না থাকুক তোমার সব সময়ে বোঝা উচিত তুমি আসলে কে।

প্রসঙ্গত, মানসিক সমস্যা বা মনের নানা রকমের অসুখ নিয়ে কথা বলতে আজও মানুষ সংকোচ বোধ করে। কারণ এটি এখনও সমাজে ট্যাবু হিসেবেই রয়ে গিয়েছে। শ্রদ্ধা ছাড়াও বলিউড থেকে দীপিকা পাডুকোন নিজের মানসিক অবসাদ নিয়ে কথা বলেছেন। এছাড়াও আলিয়া ভাট, ক্যাটরিনা কাইফ নিজেদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।