বারাণসী: প্রতিপক্ষের নাম নিয়ে জল্পনা শেষ হয়েছে বুধবারই৷ প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ মুখে না বললেও হেভিওয়েট প্রার্থীকে যে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে বিজেপি, তা প্রমাণিত৷ বৃহস্পতিবার তাই নিজের লোকসভা কেন্দ্র বারাণসীতে শক্তি যাচাইয়ের পরীক্ষায় নামছে মোদী অ্যাণ্ড কোং৷ বড়সড় রোড শো করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷

নির্বাচনী পরীক্ষায় বসার আগে এ যেন কার্যত লাস্ট মিনিট সাজেশনে চোখ বুলিয়ে নেওয়া৷ উল্লেখ্য ২০১৪ সালে এই বারাণসী কেন্দ্র থেকে প্রতিপক্ষ আম আদমি পার্টি প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে ৩ লক্ষ ভোটে হারিয়ে ছিলেন নরেন্দ্র মোদী৷ এবার টক্কর আরও কড়া৷ মোদী ম্যাজিকও আর সেই পুরোন ফর্মে নেই বলেই ইঙ্গিত দিচ্ছে ভোটপূর্বের সব সমীক্ষা৷ মার্জিন কমতে পারে৷ তাই বারণসীর ভোটারদের মন জয় করতে বৃহস্পতিবার গঙ্গা আরতিতে সামিল হবে মোদী৷

১৯শে এপ্রিল বারাণসী কেন্দ্রে ভোট৷ তার আগে দলীয় সূত্রে খবর ২৬শে এপ্রিল নিজের মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন তিনি৷ সেই মনোনয়ন জমাকে কেন্দ্র করেও শক্তি ঝালাইয়ের পথেই হাঁটতে চলেছে বিজেপি৷ উপস্থিত থাকবেন শিবসেনা প্রধান উদ্ভব ঠাকরে, জেডিইউর অন্যতম নেতা নীতিশ কুমার৷ শরিকদের পাশে নিয়ে কংগ্রেসের পিলে চমকাতে তৈরি গেরুয়া শিবির৷

জানা গিয়েছে, বেলা তিনটে নাগাদ এই রোড শো শুরু হবে বারাণসীতে৷ বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মদন মোহন মালব্যর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে রোড শো শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী৷ রোড শো শেষ হওয়ার কথা দশাশ্বমেধ ঘাটে৷ সেখানেই বিকেলের গঙ্গা আরতিতে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী৷

শুক্রবার সকাল ৯টা নাগাদ লোকসভা কেন্দ্রে কর্মী সমর্থকদের ও দলীয় নেতাদের নিয়ে বিশেষ বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী৷ মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার আগে কাল ভৈরব মন্দিরও দর্শন করার কথা রয়েছে তাঁর৷ মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার সময় তাঁর সঙ্গে শিবসেনা ও জেডিইউ ছাড়াও থাকবেন বিজেপির শীর্ষ নেতারা৷ যেমন সুষমা স্বরাজ, পীযূষ গোয়েল, জে পি নাড্ডা, নিতীন গড়কড়ি৷ থাকবেন শিরোমণি অকালি দলের নেতা প্রকাশ সিং বাদল, এলজেপির রামবিলাস পাসোয়ান প্রমুখ৷

এদিকে, বুধবারই জানা যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে বারাণসী থেকে লড়ছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ও লোকসভা ভোটে দলের অন্যতম তুরুপের তাস প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ সূত্রের খবর আগামী ২৯ এপ্রিল মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন তিনি৷

সূত্রের খবর মোদীর মতই কালভৈরব মন্দিরে পুজো দিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন প্রিয়াঙ্কা৷ প্রিয়াঙ্কা লড়লে সপা-বসপা-আরএলডি জোটের প্রার্থী মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেবেন বলে খবর৷ ফলে জোটের ভোট কংগ্রেসের দিকেই যেতে পারে৷ উল্লেখ্য, জোটের প্রার্থী হিসেবে সোমবার শালিনী যাদবকে দাঁড় করানো হয়েছিল৷