স্টাফ রিপোর্টার, ইসলামপুর: চা বাগানে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক নিরীহ মহিলার মৃত্যু হল৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরের পাটাগোরার নয়াবস্তি এলাকায়। এই সংঘর্ষে আহত হয়েছেন আরও দু’জন। তাঁদের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত গুরুতর। ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন দু’জনে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল ও বিধায়ক আবদুল করিম চৌধুরির মধ্যে বিবাদ দীর্ঘদিনের। ইসলামপুরের পাটাগোরা এলাকার নয়াবস্তি গ্রামের একটি চা-বাগানে কানাইয়ালাল ও করিম উভয়েরই অনুগামীরা কাজ করেন। শ্রমিক সরবরাহ নিয়ে দুই গোষ্ঠীর মধ্যেই অশান্তি রয়েছে। ডানকান কোম্পানি বাগান ছেড়ে যাওয়ার পর এই অঞ্চলে বাগানের দখল নিয়ে মাফিয়ারাজ দীর্ঘদিন ধরে চলছে।

বৃহস্পতিবার ওই চা-বাগানে ক্ষমতা দখলকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের অনুগামীদের মধ্যে বিবাদ চরমে ওঠে । অভিযোগ, কানাইয়ালালের অনুগামীরা প্রথমে চড়াও হয় করিমের অনুগামীদের উপর । সেইসময় চা-বাগানে করিম অনুগামী এক মহিলা শ্রমিক এলে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে কানাইয়ালালের লোকেরা৷ ঘটনাস্থানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

এদিকে, দুপক্ষই এই ঘটনাকে দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মানতে নারাজ। তাদের দাবি, বহিরাগতরা এ কাণ্ড ঘটিয়েছে। আপাতত গোটা এলাকাকে ঘিরে ফেলেছে ইসলামপুর থানার পুলিশ। মহিলার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এখনও পর্যন্ত দু’জনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

তৃণমূলের ইসলামপুর ব্লক সভাপতি জাকির হুসেন বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনো যোগ নেই। এলাকার দুই পক্ষের মধ্যে জমি দখল নিয়ে ঝামেলা চলছিল। তাতে এদিন গুলিবিদ্ধ হয়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে জানতে পেরেছি। বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV