স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: বচসা শুরু হয়েছিল একটা দোকানের সামনে৷ সেখান থেকেই ছড়াল উত্তেজনা৷ এমনকী বচসার মধ্যেই বন্ধুকে লক্ষ্য করে গুলি চালাল এক ব্যক্তি বলে অভিযোগ৷ ফের প্রকাশ্যে শ্যুট আউটের ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার জগদ্দল থানা এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে খবর দুষ্কৃতীর গুলিতে জখম হলেন যুবক। জখম ওই যুবকের নাম সাহিল মাহাত। তাঁর হাতে গুলি লেগেছে। রবিবার বিকেলে উত্তর ২৪ পরগনার জগদ্দল থানার অন্তর্গত কলা বাগান এলাকায় এই গুলি চালনার ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত দুষ্কৃতী বীরেন মন্ডল। বীরেনই সাহিলকে সকলের সামনে গুলি করে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন : বিজেপি সহ সভাপতির বিরুদ্ধে তৃণমূল কাউন্সিলরকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ 

গুলিবিদ্ধ যুবক সাহিলের মা সুনিতা দেবী বলেন, “এদিন বিকেলে ওর এক বন্ধু ওকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর সাহিলের সঙ্গে কলাবাগান এলাকায় বীরেন মন্ডল নামে ওই দুষ্কৃতীর কোন বিষয় নিয়ে বচসা হলে সবার সামনেই বীরেন বন্দুক বের করে সাহিলকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। কোন রকমে প্রাণে বেঁচে যায় সাহিল। ঘটনার পর এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় ওই কুখ্যাত দুষ্কৃতী।

স্থানীয়রা রক্তাক্ত গুলিবিদ্ধ যুবককে ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এসে ভরতি করে। সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই যুবক। গুলিবিদ্ধ যুবকের মা সুনিতা দেবী এই ঘটনায় অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে জগদ্দল থানার পুলিশের কাছে। অভিযুক্ত ওই যুবককে খুঁজছে পুলিশ।

আরও পড়ুন : দিদিভাই আপনিই গাছের গোড়া কেটে বসে আছেন, মমতাকে পাল্টা জবাব অধীরের

এদিকে প্রশ্ন উঠেছে দুষ্কৃতীরা এত বেআইনি অস্ত্র পাচ্ছে কি করে? পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রের খবর মদের আসরে বচসার জেরেই বীরেন মন্ডল গুলি করে খুনের চেষ্টা করে সাহিল মাহাতকে।