স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: পুলিশ ফাঁড়ির সামনে শ্যুট আউট। আর এই ঘটনার জেরে মৃত্যু হল এক যুবকের।

সোমবার রাতের দিকে ঘটনাটি ঘটে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার কামারহাটি এলাকায়। ২২ বছর বয়সী ওই মৃত যুবকের নাম সাহেব আলি।

আরও পড়ুন- নিরাপত্তার দাবিতে মুর্শিদাবাদ জেলা প্রশাসনিক ভবনে বিক্ষোভ ভোট কর্মীদের

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত সাহেব আলি পেশায় ফল বিক্রেতা। ফাঁড়ির কাছেই তাঁর একটি দোকান ছিল। এদিন রাতে সেই দোকানেই কয়েকজন দুষ্কৃতী আসে। তাঁদের সঙ্গে বচসা হয় সাহেবের। এরপরেই তাঁকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে দুষ্কৃতীরা।

আরও পড়ুন- তৃণমূল-সিপিএমের ব্যানার-পতাকা ছিঁড়ে পুড়িয়ে দেওয়ায় অভিযুক্ত বিজেপি

প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুসারে, সাহেবের সঙ্গে বচসা হয় ওই দুষ্কৃতীদের। এরপরে দুষ্কৃতী দের মধ্যে একজন পকেট থেকে একটি পিস্তল বের করে সাহেবকে খুব কাছ থেকে গুলি করে। গুলি করার পর সাহেব তার ফলের দোকানের পাশেই লুটিয়ে পড়ে। সাহেবের বুক ও পেটের মাঝে গুলি লেগেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন- থিয়েটার হলে আততায়ীর গুলিতে নিহত হন মার্কিন প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন

এরপরেই স্থানীয় বাসিন্দারা তাড়া করলে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। খবর দেওয়া হয় কামারহাটি ফাঁড়ির পুলিশকে। পুলিশ এসে সাহেবকে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

সমগ্র ঘটনার তদন্তে নেমেছে কামারহাটি ফাঁড়ির পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, দুষ্কৃতীদের পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। ৩০২ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। পাশাপাশি অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।