ফ্লোরিডা: নিজের চোখে দেখা দৃশ্যে বিভ্রান্ত হয় নিজেই, কারণ তা এততাই অবিশ্বাস্য। তেমনই এক ছবি এবার দেখা গেছে মার্কিন মুলুকে। ফ্লোরিডার জ্যাকসনভিল নৌ-সেনা ঘাঁটিতে এই দৃশ্য চাক্ষুষ করেছেন অনেকেই। একটি বিশালাকৃতি কুমির যা মন কেরেছে নেটিজেনদের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি বিশালাকৃতি সরীসৃপ প্রাণী অ্যালিগেটর মিলিটারি এয়ারবেসের দেওয়াল বেয়ে গড়গড়িয়ে উঠে যাচ্ছে। দেওয়ালের উপরে পৌঁছে যাবার পর অ্যালিগেটরটি নিজের দেহটিকে অন্যদিকে নিয়ে যায়। এবং কোন জড়তা ছাড়াই সে খুব সহজেই হেঁটে চলে যায়।

ফ্লোরিডার স্থানীয় এক বাসিন্দা ক্রিসটিনা স্টুয়ারট দুর্ধর্ষ এই দৃশ্যটিকে ক্যামেরাবন্দি করেছেন ও তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউণ্টে পোস্ট করেছেন। তিনি এই ভিডিওটিতে ক্যাপশন দিয়েছেন, “আমি নিজের চোখে ওই অ্যালিগেটরটিকে গেটের ওপর দিয়ে বেয়ে উঠতে দেখে ও সঙ্গে সঙ্গেই অদৃশ্য হয়ে যেতে দেখে আনন্দিত।”

আরও পড়ুন : খতম লাদেনের ছেলে, স্বীকার করল আমেরিকা

মিলিটারি বেসের আধিকারিকরাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই অ্যালিগেটরগুলিকে সরিয়ে দেওয়ার কোন ভাবনা নেই যতক্ষননা ওরা মানুষের ক্ষতি করছে। প্রসঙ্গত, ফেসবুকে নৌ-ঘাঁটির পক্ষ থেকে একটি ছবি পোস্ট করা হয়েছে যেখানে দেখা দেছে ওই অ্যালিগেটরটি দেওয়াল বেয়ে উঠছে। ওই ছবিটির নামকরন করে তারা লিখেছন, “যদি ফ্লোরিডায় আপনি নতুন হন অথবা অনেক দিনের বাসিন্দা হন, আপনি যদি জল দেখতে পান তাহলে অবশ্যই ভাববেন যেখানে অ্যালিগেটর থাকতেই পারে। আমাদের এই ঘাঁটিতে একাধিক অ্যালিগেটর আছে আর ওরা আমাদের নিরাপত্তার তোয়াক্কা করে না।” এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, “কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রসঙ্গে তিনি শিশুদের ও পোষ্যদের নিয়ে খেয়াল রাখতে বলেছেন। যারা গলফ খেলোয়ারদের আরও মনোযোগি হতে বলেছেন।