নয়ডা: এক মহিলাকে ঘিরে কিছু পুরুষ৷ সকলে মিলে বেদম মার মারছে ওই মহিলাকে৷ একজন তাঁর চুলের মুঠি ধরে মাটিতে হ্যাঁচরাতে হ্যাঁচরাতে টেনে নিয়ে যাচ্ছে৷ অন্য একজন লাঠি নিয়ে তেড়ে এল মারতে৷ যন্ত্রণায় মাটিতে শুয়ে কাতরাচ্ছে সে৷ মহিলাকে মারের দৃশ্য দেখতে অনেকেই ভিড় করেন৷ কিন্তু একজনও বাঁচাতে এগিয়ে এলো না৷

ওই ভিড়ের মধ্যে কেউ ঘটনাটি মোবাইলে রেকর্ড করে৷ সেই ফুটেজ পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়৷ তারপরে অনেকেই নেট দুনিয়ায় ক্ষোভ উগড়ে দেন৷ আর মহিলাকে মারের কারণ শুনে আরও হতবাক বনে যান৷

আরও পড়ুন: সল্টলেকে হাতের শিরা কেটে যুবকের মৃত্যু

নয়ডার নলেজ পার্ক এলাকার একটি পার্লারে কাজ করে সে৷ একমাস আগেই কাজে ঢোকে সে৷ কিন্তু মাস শেষ হলেও বেতন পেতে দেরি হওয়ায় মালিকের কাছে টাকা দাবি করেন৷ সেই ‘অপরাধে’ জনা কয়েক পুরুষ তাঁকে বেদম মার শুরু করে৷ প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, তারা দেখেন ওই মহিলার সঙ্গে কিছু পুরুষের তর্কাতর্কি চলছে৷ তাদের মধ্যে থেকে একজন মহিলার গায়ে হাত তোলে৷ তাঁর চুলের মুঠি ধরে টানতে থাকে৷ ওই অবস্থায় টেনে হিচড়ে নিয়ে যায়৷ লাঠি নিয়ে এসে একজন মারতে থাকে৷ এতকিছুর কারণ ওই মহিলা তাঁর হকের টাকা দাবি করেছিলেন৷

মার খেয়ে গুরুতর আহত হন ওই মহিলা৷ ওই অবস্থায় সে নলেজ পার্ক পুলিশ থানায় যান৷ সেখানে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন৷ যদিও এখনও অবধি কাউকেই গ্রেফতার করা যায়নি৷ তবে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ট্যুইট করে জানিয়েছে, নলেজ পার্ক থানায় একটি কেস দায়ের হয়েছে৷ তদন্ত চলছে৷