মুম্বই: বড়সড় জায়গা পেতে চলেছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ভব ঠাকরের ছেলে আদিত্য ঠাকরে৷ শিবসেনার পক্ষ থেকে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নাম প্রস্তাব করা হতে পারে আদিত্যর৷ মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবীশের সঙ্গে এই প্রসঙ্গে ইতিমধ্যেই কথাবার্তা শুরু করেছে শিবসেনা বলে সূত্রের খবর৷

শিবসেনাকে উদ্ধৃত করে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে ডিএনএ৷ রিপোর্ট বলছে বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে শিবসেনা৷ তাদের চোখ এখন মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রীর পদে৷ আর সেই পদের জন্যই আদিত্যর নাম প্রস্তাব করা হবে৷ শুক্র বা শনিবার এই ইস্যুতে বৈঠকে বসবে শিবসেনা কোর কমিটি৷ মহারাষ্ট্র মন্ত্রিসভার আর কোন কোন পদের জন্য দাবি জানানো হবে, আলোচনা চলবে সেই নিয়ে৷

আরও পড়ুন : ভারত সফরের আগে মার্কিন বিদেশ সচিবের মুখে, ‘মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়’

শিবসেনার প্রস্তাবে যদি সম্মত হয় বিজেপি, তবে ২৯ বছরের আদিত্যর রাজনৈতিক জীবনে এই প্রথম কোনও ভারি পদ প্রাপ্তি হবে৷ শিবসেনার অন্দরে এই পরিবর্তনও যথেষ্ট লক্ষ্যণীয়৷ বিজেপির সঙ্গে শিবসেনার অম্ল-মধুর সম্পর্কেও কিছুটা স্বস্তির ছোঁয়া আসবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

উল্লেখ্য গত বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে জোট ভেঙে গিয়েছিল। ভোটের পরে যদিও আবার এনডিএ জোটে ফিরে আসে শিবসেনা। পরে ফের বিপত্তি দেখা যায়। সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের আগে যাবতীয় জটিলতা কাটিয়ে জোট বদ্ধ হয় দুই গেরুয়া দল।

তবে লোকসভা নির্বাচনে মিটতেই ফের জোটের জটিলতা দেখা দিয়েছে মহারাষ্ট্রের শাসক জোটের অন্দরে। এমনই খবর প্রকাশ করেছে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস নাও। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে মহারাষ্ট্রের মোট বিধানসভা আসনের ৫০ শতাংশ দাবি করেছে শিবসেনা। আর সেই দাবি মানতে নারাজ বিজেপি।

আরও পড়ুন : ৫০,০০০ প্রতারণায় ২ লক্ষ কোটি ক্ষতির বোঝা ব্যাংকে: RBI রিপোর্ট

ওই রাজ্যের মোট লোকসভা আসন সংখ্যা ৪৮টি। সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ২৩টি আসনে জিতেছে। অন্যদিকে শিবসেনার ঝুলিতে গিয়েছে ১৮টি আসন। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও এই একই ছবি দেখা গিয়েছিল।

এদিকে, মহারাষ্ট্রের বিধানসভার মোট আসন সংখ্যা ২৮৮ টি। বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে শিবসেনা ১৩৫ আসনে প্রার্থী দিক। একই সংখ্যক আসনে প্রার্থী দেবে বিজেপি। বাকি ১৮টি আসন অন্যান্য ছোট রাজনৈতিক দলগুলিকে দেওয়া হবে। যারা এনডিএ জোটের অংশ। যদিও সেই তত্ত্ব মানতে নারাজ শিবসেনা। মোট আসনের ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ১৪৪ আসনেই তারা প্রার্থী দিতে চাইছে ঠাকরেবাহিনী।

সূত্রের খবর, শুধু উপমুখ্যমন্ত্রীত্বই নয়, শিবসেনার নজর রয়েছে লোকসভার ডেপুটি স্পীকারের পদের দিকেও৷ সেই আসনের জন্য ইতিমধ্যেই দলের তরফ থেকে গজানন কীর্তিকারের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে৷ তবে বিজেপির তরফ থেকে এখনও সবুজ সংকেত আসেনি৷ বিজেপি সূত্রের খবর, শিবসেনা নয়, এই পদ পেতে পারেন ওয়াইএসআর কংগ্রেসের কোনও প্রার্থী৷ তাই উপমুখ্যমন্ত্রীর পদে আদিত্যর নাম মেনে নিয়ে ড্যামেজ কন্ট্রোল করার চেষ্টা করতে পারে বিজেপি বলে মনে করা হচ্ছে৷