নয়াদিল্লি: কাশ্মীরের সিপিএম নেতা ইউসুফ তরিগামিকে চিকিৎসার জন্য শ্রীনগর থেকে দিল্লিতে এইমসে এনে চিকিৎসা করানোর অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। বৃহষ্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বেঞ্চ এই নির্দেশ দেয়। এদিন আদালত জানিয়েছে অসুস্থ তারিগামিকে কোনও রকম দেরি না করে দিল্লির অল ইন্ডিয়া মেডিক্যাল সায়েন্স কলেজে এনে চিকিৎসা করানো হোক। এজন্য প্রয়োজন হলে শের-ই-কাশ্মীর ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স কলেজের চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া হোক।

প্রথমে কাশ্মীরে যেতে বাধা পেলেও গত সপ্তাহেই কাশ্মীরের এই সিপিএম নেতা ইউসুফ তারিগামির সঙ্গে গিয়ে দেখা করেন সিপিএম-এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। ফিরে এসে ইয়েচুরি আদালতের কাছে হলফনামা দাখিল করে জানান, তারিগামির শারীরিক অবস্থা মোটেই ভাল নয়। তাঁর শারীরিক অবস্থা গুরুত্ব দিয়ে দেখার জন্য আবেদন করেন। এর এক সপ্তাহ পরেই এদিন আদালত তারিগামির চিকিৎসার জন্য তাঁকে দিল্লিতে আনার নির্দেশ দিল।

কাশ্মীরের বিশেষ সুবিধা ৩৭০ ধারা বিলোপের সিদ্ধান্তের একদিন আগে থেকেই সেখানকার সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতাদের গৃহবন্দি করার নির্দেশ দেয় কেন্দ্র। যদিও সিপিআই(এম) সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি আদালতকে জানান, নির্দেশিকায় তারিগামিকে বন্দি করে রাখার কথা উল্লেখ নেই। ফলে এদিন আদালত এর ভিত্তিতে কেন্দ্র সহ কাশ্মীর প্রশাসনের বিরুদ্ধে নোটিস জারি করে এবং একসপ্তাহের মধ্যে এর উত্তর দিতে বলে আদালত। এই মামলার পরবর্তী শুনানির ধার্য করা হয়েছে ১৬ সেপ্টেম্বর।