মুম্বই: শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে পিটার মুখার্জীর জামিনের আবেদন খারিজ করল আদালত। সোমবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে খারিজ হয়ে যায় মিডিয়া কর্তা পিটারের জামিনের আবেদন। শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডের কেস ডায়েরিতে এমন কিছু তথ্য রয়েছে যেগুলি প্রকাশ্যে নিয়ে আসা সম্ভব নয়। সেই তথ্যগুলির উপর ভিত্তি করেই পিটার মুখার্জীর জামিনের আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিচারক।

পিটার মুখার্জীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন এবং বিশ্বাসযোগ্য নয়। এমনই দাবি করে গত মার্চ মাসে জামিনের আবেদন করেছিলেন তার আইনজীবী। পিটার মুখার্জী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত নয় বলে চলতি মাসের ১৩ তারিখে জামিনের তার জামিনের বিরোধীতা করেছিল সিবিআই। এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার যুক্তি ছিল, জামিন পেলে পিটার মামলা প্রভাবিত করতে পারে। যদিও শিনা বোরা হত্যায় তার স্ত্রী ইন্দ্রাণীর জড়িত থাকার অভিযোগকে অস্বীকার করেনি পিটার। পিটারের আইনজীবীদের দাবি, ‘শিনা হত্যাকাণ্ডে ইন্দ্রাণী প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। ইন্দ্রাণী প্রচণ্ড উচ্চকাঙ্খী, নিজের স্বার্থের জন্য সে সবকিছুই করতে পারে। পিটার এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত ছিল না।’

গত বছরের নভেম্বর মাসের ১৯তারিখে শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে পিটার মুখার্জীকে গ্রেফতার করে সিবিআই। ৫৯বছর বয়সী পিটারকে দুই সপ্তাহ জেরার পর পুলিশের হাতে তুলে দেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তারপর থেকে আর্থার রোডের জেলে রয়েছে মিডিয়া কর্তা পিটার মুখার্জী।