অ্যাডিলেড: চলতি অ্যাশেজে তাঁর দলে থাকা নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি! কম সমালোচনাও শুনতে হয়নি অজি মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানকে৷ রবিবার অ্যাডিলেড ওভালে লড়াকু সেঞ্চুরি করে শন মার্শ বুঝিয়ে দিলেন জাতীয় নির্বাচকরা কেন তাঁর প্রতি আস্থা রেখেছেন৷ সেই সঙ্গে অ্যাশেজে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ পেলেন মার্শ৷

মার্শ যখন ক্রিজে আসেন, অস্ট্রেলিয়া তখন ১৬১ রানে চার উইকেট খুঁইয়েছে৷ সেখান থেকে পিটার হ্যান্ডসকম্ব, টিম পেইন ও প্যাট কামিন্সের সঙ্গে জুটি বেঁধে অস্ট্রেলিয়াকে বড় ইনিংসের পথে টেনে নিয়ে যান মার্শ৷ তিন জনের সঙ্গে যথাক্রমে ৪৮, ৮৩ ও ৯৯ রানের পার্টনারশিপ গড়েন তিনি৷ হ্যান্ডসকম্ব ৩৬, পেইন ৫৭ ও কামিন্স ৪৪ রানে আউট হলেও দায়িত্বশীল ইনিংস খেলে দলকে চারশোর গণ্ডি টপকাতে সাহায্য করেন মার্শ৷

ব্যক্তিগত ১২৬ রানে অপরাজিত থাকেন অজি মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান৷ ৮ উইকেটে ৪৪২ রানে প্রথম ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া৷ ইংল্যান্ডের হয়ে ওভার্টন তিনটি ও স্টুয়ার্ট ব্রড দু’টি উইকেট নেন৷ অ্যান্ডারসন ও ওকস একটি করে উইকেট পেয়েছেন৷

ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় দিনের শেষে ওপেনার স্টোনম্যানের উইকেট হারিয়ে ২৯ রান তুলেছে ইংল্যান্ড৷ ১৮ রান করে স্টার্কের বলে এলবিডব্লিউ হয়েছেন তিনি৷ কুক ব্যাট করছেন ১১ রানে৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব