নয়াদিল্লিঃ রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করার পর ফের কেন্দ্রকে দুষলেন ডিমকে নেত্রী কানিমোঝি । ডিজিটাল ইন্ডিয়া ও ২০১৯ এর বাজেটকে কটাক্ষ করে ব্রিহস্পতিবার লোকসভায় দাবি করেন, এখনও ভারতীয় রেলের ম্যানুয়াল সাফাই কমী নিয়োগকে জাতীয় লজ্জা বলেন।

লোকসভায় রেলের একটি বিতকতে যোগদান করে তিনি বলেন, কেন্দ্র চুক্তিভিত্তিকভাবে ঠিকাদারের মাধ্যমে নিয়োগ করে তা লুকিয়ে যাচ্ছে। প্রকাশ্যে আনছেন না। যা কমীদের পক্ষে এতটুকু সহায়ক নয়।

প্রধানমত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডিজিটাল ইন্ডিয়ার ভাবনা ও ২০১৯ এর ভবিষ্যতমুখী বাজেটকে সামনে রেখে, তিনি এই কাজকে জাতীয় লজ্জার সাথে তুলনা করেন। এর পাশাপাশি তিনি হিন্দি ভাষার দাপটের কথা উল্লেখ করে বলেন, রেল স্টেশন এর প্রতিটি সাইন বোড শুধুমাত্র হিন্দিতে, যেখানে আঞ্চলিক ভাষাও থাকা উচিত।

শাসকদলের কাজ সাধারন মানুষের পাশে থাকা, সাধারনের জন্য কাজ করা। নাম, প্রতীক ও ভাষা সবসময় আঞ্চলিক ভাষায় থাকা উচিত। সাধারন মানুষের বুঝতে তা জেনো অসুবিধা না হয় ।

ভাষাবৈষম্যেকে ইস্যু করে তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের সব অনুস্টান হিন্দি ভাষায় তৈরি। তামিলনাড়ুর প্রত্যন্ত গ্রামের লোকজনদের বোঝার জন্য যা খুবই কঠিন ।

ডিএমকের প্রতিষ্ঠাতা করুণানিধির মৃত্যুর পর তাঁর লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়ান মেয়ে কানিমোঝি৷ তামিলনাড়ু বিজেপির সভাপতি তামিলিসাই সৌন্দর্রাজনকে হারিয়ে দেন৷