দুবাই: পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের সামনে বাংলাদেশ৷ শুক্রবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেতাবের লড়াই৷ কিন্তু এই লড়াইয়ে দলের এক নম্বর অল-রাউন্ডার শাকিব-আল হাসানকে পাবে না বাংলাদেশ৷ চোট পেয়ে দেশে ফিরছেন শাকিব৷

সুপার ফোরের প্রথম দু’টি ম্যাচ জিতে আগেই ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে ভারত৷ তাই ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ টাই হলেও রোহিতদের ফাইনাল খেলা নিয়ে কোনও সমস্যা হয়নি৷ আর বুধবার সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে ৩৭ রানে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট আদায় করে নেয় মাশরাফি মোর্তাজারা৷ অর্থাৎ চলতি বছরে দু’টি টুর্নামেন্টের ফাইনালে মুখোমুখি ভারত ও বাংলাদেশ৷ মার্চে শ্রীলঙ্কার ইন্ডিপেন্ডস কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল দুই প্রতিবেশি দেশ৷ রুদ্ধশ্বাস ফাইনালে বাংলাদেশকে ৪ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত৷

শুক্রবার এশিয়া কাপের ফাইনালে শাকিবের না-থাকাটা বাংলাদেশের কাছে নিঃসন্দেহে বড় ক্ষতি৷ আঙুলের পুরনো চোটের জায়গায় বুধবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার সময় ফের চোট পান শাকিব৷ ফলে প্রায় ছ’ সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান৷ এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান আক্রম খান৷

সাংবাদিকদের বিসিবি চেয়ারম্যান জানান, ‘অন্তত ছ’ সপ্তাহ শাকিবকে মাঠের বাইরে থাকতে হবে৷ কয়েকদিন ধরেই ও আঙুলে ব্যাথা হচ্ছিল৷ দলের ফিজিও ওকে খেলার জন্য সুস্থ করে তুলেছিল৷ কিন্তু পাকিস্তান ম্যাচের পর যন্ত্রণা এত বেড়ে যায় ফাইনালে কোনওভাবেই শাকিবের মাঠে নামা সম্ভব নয়৷’
এর ফরে শুধু ভারতের বিরুদ্ধে এশিয়া ফাইনালই নয়, ঘরের মাঠে আসন্ন জিম্বাবোয়ে সিরিজেও খেলতে পারবেন না শাকিব৷ বাংলাদশ-জিম্বাবোয়ে সিরিজ ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ১৪ অক্টোবর৷ বৃহস্পতিবারই ঢাকায় ফিরছেন শাকিব৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।