ঢাকা: নির্বাসন কাটিয়ে ফের মাঠে ফিরতে চলেছেন বাংলাদেশের নম্বার ওয়ান অল-রাউন্ডার শাকিব আল হাসান৷ চলতি বছরের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা সফরে জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন করতে পারবেন শাকিব৷

দুর্নীতি সম্পর্কে টিম ম্যানেজমেন্টকে খবর না-দেওয়ায় এক বছরের জন্য নির্বাসিত হয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক৷ কিন্তু ২৯ অক্টোবর তাঁর নির্বাসনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ চলাকালীন কোনও ভারতীয় বুকের দ্বারা দুর্নীতিগ্রস্থ পদ্ধতির রিপোর্ট করতে ব্যর্থ হওয়ায় শাকিবকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছিল৷ পরে তা কমিয়ে এক বছর কর হয়৷ সেই নির্বাসনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রস্তাবিত তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে খেলতে পারবেন শাকিব৷

বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিংগোকে উদ্ধৃত করে ইএসপিএনক্রিকইনফোর প্রতিবেদেন লেখা হয়েছে, ‘আমি মনে করি, শাকিবের এক বছরের জন্য বাইরে থাকা খুব বেশি পার্থক্য হয়নি৷ কারণ আমাদের দল তো ছয় বা সাত মাস ধরে খেলেনি৷ আশা করছি সব খেলোয়াড় ফিট রয়েছে। তবে মানদণ্ড হিসেবে ফিটনেস পরীক্ষা হবে৷ পাশাপাশি শাকিব-সহ বাকি খেলোয়াড়ের জন্য আমাদের প্র্যাকটিস ম্যাচের আয়োজন করতে হবে।’ অল-রাউন্ডার শাকিবের ফিটনেস পরীক্ষা আগে নেওয়া হবে৷

প্রধান কোচ আরও বলেন, ‘কোনও রকম ক্রিকেট ছাড়াই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রবেশ করা খুব কঠিন। আমি মনে করি, আমাদের কিছু গেম খেলার সুযোগ খুঁজে বের করতে হবে। শাকিব বিশ্বমানের খেলোয়াড়, তাই আমি নিশ্চিত খুব শীঘ্রই ও ফিরে আসতে পারবে৷ তবে ফিটনেস একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷’

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের চিফ একজিকিউটিভ মোহন ডি’সিলভা জানান, দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ড বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর নির্ধারণ করেছে৷ তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের অনুরোধ করার পরে দুই বা তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হবে কিনা তা নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে। প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরে আসার জন্য শাকিব বিকেএসপি সুবিধাযুক্ত বাংলাদেশের বৃহত্তম ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ শুরু করতে চলেছেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।