মুম্বই- অভিনেতা নানা পটেকরের বিরুদ্ধে দীর্ঘ ১০ বছর পরে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। তার পর থেকেই হ্যাশট্যাগ মিটু মুভমেন্টে সরগরম হয় গোটা বলিউড। যদিও এর সূত্রপাত ২০০৬ সালে। মার্কিন অ্যাক্টিভিস্ট তারানা বুরকে এই মুভমেন্ট শুরু করেছিলেন। দেরিতে হলেও বলিউডে বেশ জোরালো প্রভাব ফেলে হ্যাশট্যাগ মিটু। আর একের পরে এক তথ্য উঠে আসতে থাকে তার পরে। এবার এই মিটু আন্দোলন নিয়ে মুখ খুললেন বলিউডের কিং শাহরুখ খান।

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, শাহরুখ খান এই মিটু মুভমেন্টকে পুরোদস্তুর সমর্থন করছেন। বাদশার মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এই আন্দোলন শুরু হলেও ভারত-সহ সারা বিশ্বের মহিলাদের যৌন হেনস্থার অভিজ্ঞতা ঘিরে নিজেদের বক্তব্য স্পষ্ট করে বলার জায়গা দিয়েছে। কর্মক্ষেত্রে কত মেয়েরা যে ভাবে হেনস্থার শিকার হয়, তার বিরুদ্ধে মুখ খোলার জন্য হ্যাশট্যাগ মিটু একটি ভাল প্ল্যাটফর্ম বলে মনে করেন শাহরুখ খান।

কিং খান এই বিষয়ে বলেছেন, পশ্চিমের দেশ থেকে এই বিষয়টি শুরু হয়েছে। কিন্তু বহু বছর আগেও যদি কোনও মহিলা যৌন হেনস্থার শিকার হয়ে থাকেন, সেটাও বলার জায়গা দিয়েছে হ্যাশট্যাগ মিটু।

হ্যাশট্যাগ মিটুর জন্য এটা অন্তত মানুষ বুঝবে যে কোনও কিছুই আর অজানা থাকবে না। শাহরুখের কথায়, চলচ্চিত্র ও মিডিয়া জগতে আমরা বিষয়গুলি সম্পর্কে এখন অবগত থাকতে পারি। মূল বিষয় হল এখন মানুষ জানে, কেউ যদি কারও সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন, তা হলে সেটা ঠিক প্রকাশ্য়ে আসবে।

প্রসঙ্গত, কিং খান সব সময়েই তাঁর মতামত স্পষ্ট করে বলেছেন। হ্যাশট্যাগ মিটুর মাধ্যমেও কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের উপর হেনস্থা অনেকটাই কমবে বলেই মনে করেন তিনি।