মুম্বই: টেলিভিশনের অন্যতম শো ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’। এই বছরও এই শোয়ের ১২ তম সিজন শুরু হয়ে গিয়েছে। এই শোয়ের সঙ্গে বিগত ২০ বছর ধরে যুক্ত রয়েছেন অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। দর্শকরাও বিগবিকে গ্রহণ করেছেন এই শোয়ের জন্য। করোনাভাইরাস মহামারির কথা মাথায় রেখে এবার এই শো-তে দর্শকরা উপস্থিত থাকছেন না। তবে প্রত্যেক বছরের মতোই শো নিয়ে উত্তেজনা রয়েছে মানুষের মধ্যে।

অনেকেই জানেন একসময় এই শো সঞ্চালনা করেছিলেন অভিনেতা শাহরুখ খানও। জানা যায় সেই বছর শাহরুখ সঞ্চালনা করলেও শোয়ের টিআরপি তেমন ভালো ছিল না। এই শোয়ের তৃতীয় সিজন সঞ্চালনা করবেন না বলে জানিয়েছিলেন অমিতাভ। তার কারণ যদিও সঠিক জানা যায় না। তখনই নির্মাতারা সঞ্চালনার জন্য শাহরুখকে প্রস্তাব দেন।

কিন্তু ততদিনে দর্শকরা এই শোয়ের মঞ্চে বিগবিকে দেখতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছেন। ব্যারিটোন কন্ঠে অমিতাভ বচ্চন যেভাবে বলেন, ‘লক কর দিয়া যায়?’ তাতে মুগ্ধ দর্শকরা। সেই জন্যই মনে করা হয় বিগবির জায়গায় কিং খানকে সে ভাবে গ্রহণ করতে পারেননি দর্শক। আর তাই টিআরপির দৌড়েও বেশ কিছুটা পিছিয়ে গিয়েছিল এই শো।

তৃতীয় সিজনে টিআরপি ভালো না এলে, নির্মাতারা সিদ্ধান্ত নেন, ফের অমিতাভ বচ্চনকে ফিরিয়ে আনবেন। জানা যায় এইসব চলাকালীন অমিতাভ বচ্চনের কাছে ক্ষমা চেয়েছিলেন শাহরুখ। পরবর্তীকালে অমিতাভের সঞ্চালনায় ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’-র মঞ্চে নিজের ছবি রা-ওয়ান এর প্রচার করতে এসেছিলেন এসআরকে। তখনই কিং খান অমিতাভ বচ্চনকে বলেছিলেন, “আমি একটা ভুল করেছিলাম। আমি আপনার জায়গা নিতে চেয়েছিলাম।” সেই তৃতীয় সিজনের পর প্রত্যেকবার সঞ্চালকের চেয়ারে অমিতাভ বচ্চন বসেছেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.