দুবাই: টি-২০ বিশ্বকাপ ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে ভারতের৷ রবিবার মেলবোর্নে মহিলা টি-২০ বিশ্বকাপ ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে পর্যুদস্ত হয়েছে ‘উইমেন ইন ব্লু’৷ সারা টুর্নামেন্টে ভালো খেললেও ফাইনালে ব্যর্থ হয়েছেন ভারতের শেফালি ভার্মা৷ আর এর ফলেই আইসিসি উইমেন ব়্যাংকিংয়ে এক নম্বর জায়গা হারান বছর ষোলোর ভারতীয় কিশোরী৷

সোমবার প্রকাশিত আইসিসি টি-২০ র‌্যাংকিংয়ে এক নম্বর ব্যাটসওম্যান হলেন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার বেথ মুনি। ১৬ বছরের ভারতীয় ওপেনার নেমে গেলেন তিন নম্বরে। প্রথম দশে শেফালি ছাড়াও রয়েছেন ভারতের সহ-অধিনায়কা স্মৃতি মান্ধানা এবং অল-রাউন্ডার জেমাইমা রডরিগেজ। ফাইনালের আগে বিশ্বকাপে ধারাবাহিক পারফর্ম করে দ্বিতীয় ভারতীয় মহিলা হিসেবে আইসিসি ব়্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান দখলে করেছিলেন শেফালি৷

বিশ্বকাপের লিগের প্রতিটি ম্যাচে ভারতীয় ইনিংসের সূচনা করে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেছেন শেফালি। কিন্তু ফাইনালে তাঁর ব্যাট খামোশ ছিল৷ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৮৪ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২ রান করে ডাগ-আউটে ফেরেন শেফালি। ফাইনালে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের অনত্যম ভরসা ছিলেন তিনি। কারণ টুর্নামেন্টে শেফালি ছাড়া ভারতের কোনও ব্যাটসওম্যানই ফর্মে ছিলেন না৷ ফলে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৮৫ রানে হেরে বিশ্বজয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় ভারতীয় মহিলা দলের৷

ফাইনালে ব্যর্থ হওয়ায় তার পরের দিনই আইসিসি-র র‌্যাংকিংয়ে এক থেকে তিন নম্বরে নেমে গেলেন শেফালি। আর এক নম্বরে উঠে আসেন ফাইনালে বিধ্বংসী ৭৮ রানের ইনিংস অজি ওপেনার বেথ মুনি। তাঁর ঝুলিতে ৭৬২ পয়েন্ট। টুর্নামেন্টে ২৫৯ রান করেছেন মুনি৷ আর বিশ্বকাপে শেফালির ব্যাট থেকে এসেছে ১৬৩ রান৷ তাঁর রেটিং পয়েন্ট ৭৪৪৷

৭৫০ পয়েন্ট পেয়ে দু’নম্বরে উঠে এসেছেন নিউজিল্যান্ডের সুজি বেটস। আর ফাইনালে ৩৯ বলে ৭৫ রানের ইনিংস খেলে আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে পাঁচ নম্বরে উঠে এসেছেন অ্যালিসা হিলি। ৬৯৪ পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে রয়েছেন ভারতের স্মৃতি মন্ধনা৷ আর ৬৪৩ পয়েন্ট নিয়ে ন’নম্বরে রয়েছেন রডরিগেজ৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব